গোবর-গোমূত্র উপকারের বিজ্ঞানসম্মত গবেষণার বিশেষ প্যানেল!

0

পঞ্চগব্য নামে পরিচিত গোবর, গোমূত্র, দুধ, দই ও ঘিয়ের উপকারিতা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণ করার লক্ষ্যে গবেষণার জন্য একটি বিশেষ প্যানেল গঠন করল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

১৯ সদস্যের এই প্যানেলে রাখা হয়েছে আরএসএস ও বিশ্বহিন্দু পরিষদের সহযোগী সংগঠন বিজ্ঞান ভারতী ও গো-বিজ্ঞান অনুসন্ধান কেন্দ্রের তিন সদস্যকে।

প্যানেলের প্রধান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী হর্ষবর্ধন। পুষ্টি, স্বাস্থ্য ও কৃষিতে পঞ্চগব্যের উপকারিতার স্বপক্ষে প্রমাণ খোঁজার জন্য বিভিন্ন প্রকল্প নির্বাচন করবে এই প্যানেল।

‘ন্যাশনাল স্টিয়ারিং কমিটি’- নামে এই প্যানেলে রাখা হয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রক, বায়োটেকনলজি মন্ত্রক, নতুন ও অপ্রচলিত শক্তি মন্ত্রকের সচিবদের।

এছাড়াও আছেন আইআইটি দিল্লির ডিরেক্টর ভি রামগোপাল রাও, অধ্যাপক ভি কে বিজয় ও সিএসআইআর- এর প্রাক্তন ডিরেক্টর আর এ মাশেলকর।

সম্প্রতি দেশজুড়ে গো-রক্ষকদের তাণ্ডব দেখা যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গতকাল গো-রক্ষকদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার বার্তা দিয়েছেন।

এরই মধ্যে গোবর, গোমূত্রের উপকারিতা প্রমাণ করার জন্য সরকারি কমিটি গঠন নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এই কমিটি তিন বছর কাজ করবে বলে জানা গিয়েছে।

বিজ্ঞান ভারতীর সম্পাদক এ জয়কুমারের দাবি, তাঁরা আয়ুর্বেদ, বাস্তুশাস্ত্রর মতো চিরাচরিত বিজ্ঞানকে তুলে ধরার কাজ করবেন।

গো-বিজ্ঞান অনুসন্ধান কেন্দ্রের সদস্য সুনীল মানসিংহকা বলেছেন, তিনি দেশীয় গরুর উপর গবেষণা করছেন।

বিজ্ঞান ভারতীর সভাপতি বিজয় ভাটকরের দাবি, মানসিংহকা গত কয়েক বছর ধরে সিএসআইআর-এর সঙ্গে গোমূত্র নিয়ে গবেষণা করছেন।

জয়কুমারও বুনিয়াদী বিজ্ঞানের উপর অনেক কাজ করেছেন। সেই কারণেই তাঁদের এই কমিটিতে রাখা হয়েছে।

[সূত্র: এবিপি আনন্দ]

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।