হেপাটাইটিস বি পরীক্ষার ফলাফলে যুবক অন্তঃসত্ত্বা!

0

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

সরকারি হাসপাতালে এসেছেন হেপাটাইটিস বি পরীক্ষা করাতে। রিপোর্ট দেখে যুবকের চোখ চড়কগাছ। রিপোর্টে এসেছে তিনি অন্তঃসত্ত্বা।

ঘটনাটি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার। ২৫ বছরের ওই যুবকের নাম সবুজ মিয়া। তিনি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার বাসিন্দা।

গত ৩ মার্চ দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সবুজ মিয়াকে এ প্রতিবেদন দেয়া হয়।

প্রতিবেদনে সই করেন দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টেকনোলজিস্ট (ল্যাব) মকবুল হোসেন।

সবুজ বলেন, পরিবারের সচ্ছলতা ফেরাতে বিদেশ যাব। সে জন্য ১লা মার্চ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হেপাটাইটিস বি পরীক্ষার জন্য রক্ত দিই। এর দুদিন পর পরীক্ষার যে ফল আসে, তা দেখে রীতিমতো হতাশ ও বিরক্ত। এখন এলাকায় এ নিয়ে হাসাহাসি চলছে। আমি খুবই বিব্রত।

এ বিষয়ে টেকনোলজিস্ট মকবুল হোসেন দাবি করেন, ভিড়ের মধ্যে ভুল করে এমন প্রতিবেদন দেয়া হয়েছে।

দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তৌহিদ আল হাসান শনিবার সন্ধ্যায় বলেন, এটা কেমন করে হলো বুঝতে পারছি না। আমরা ওই ছেলেকে আবারও হাসপাতালে আসতে বলেছি। আমরা রিপোর্ট যাচাই করে এ বিষয়ে শিগগিরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

১৩৫০ টন কয়লা নিয়ে ভৈরব নদে ট্রলার ডুবি

ভৈরব নদে ১৩৫০ টন কয়লা বোঝাই ‘এমভি সুরাইয়া’ নামের একটি কার্গো জাহাজ ডুবে গেছে। তবে জাহাজের ১২ জন স্টাফ সাঁতরে তীরে উঠেছেন।

শনিবার দুপুরে যশোরের অভয়নগর উপজেলার ভাটপাড়া খেয়াঘাট সংলগ্ন ইকোপার্কের সামনে ভৈরব নদে এ ঘটনা ঘটে।

এমভি সুরাইয়া জাহাজের মাস্টার সোহাগ হোসেন রাজু বলেন, ২৮ ফেব্রুয়ারি মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়া পয়েন্ট থেকে ১১৬০ টন কয়লা নিয়ে অভয়নগরের নওয়াপাড়া নদীবন্দরের উদ্দেশে যাত্রা করি। আনলোড পয়েন্টে জায়গা না থাকায় ১লা মার্চ অভয়নগরের ভাটপাড়া খেয়াঘাট সংলগ্ন ইকোপার্কের সামনে জাহাজ নোঙর করা হয়।

তিনি বলেন, শনিবার সকাল ১০ টার দিকে জাহাজের তলদেশ ফেটে পানি ঢুকতে শুরু করে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে জাহাজ ডুবে যায়। আমরা ১২ জন সাঁতরে জীবন রক্ষা করেছি।

তার দাবি, কাগজে কলমে ১১৬০ টন থাকলেও জাহাজে ১৩৫০ টন কয়লা ছিল।

এ ব্যাপারে অভয়নগর থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

নওয়াপাড়া নদীবন্দরের উপ পরিচালক মাসুদ পারভেজ বলেন, সকালে কয়লা আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমাকে জানানো হয় নদীর মাঝামাঝি স্থানে জাহাজ আটকে গেছে। এ সময় তারা সহযোগিতা চাইলে জাহাজ পাড়ে ভেড়াতে বলা হয়।

দুপুরে জানতে পারি জাহাজ ডুবে গেছে। ঘটনাস্থলে একটি টিম পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ওই জায়গায় নৌযান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।