এবার সমাবেশে বিএনপি নেতার দিকে স্যান্ডেল ছুড়লেন নেতা-কর্মীরা!

0

সময় এখন ডেস্ক:

রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত বিএনপির মহাসমাবেশে স্যান্ডেল নিক্ষেপ ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার বিকেলে পুঠিয়া উপজেলার শিবপুরে অনুষ্ঠিত বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশে দলটির নেতা শফিকুল হক মিলন বক্তব্য দিতে মঞ্চে উঠলে স্যান্ডেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সমাবেশের শুরুতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মিজানুর রহমান মিনু, রুহুল কবির রিজভীসহ অতিথিরা মঞ্চে উঠলে অভিমান ও দ্বন্দ্বের কারণে মঞ্চে না উঠে সমর্থকদের নিয়ে মাঠে বসে থাকেন কেন্দ্রীয় বিএনপির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রাজশাহী মহানগর বিএনপির সদ্য সাবেক সভাপতি ও সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল এবং কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ ত্রাণ বিষয়ক ও মহানগর বিএনপির সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন।

তাদের মঞ্চে আসতে বলা হলেও তারা মাঠেই অবস্থান নেন।

এতে বিব্রত হয়ে সমাবেশের সভাপতি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ মাঠে এসে তাদের মঞ্চে যেতে অনুরোধ করেন। তবুও তারা মাঠেই বসে থাকেন।

বিকেল সোয়া ৪টার দিকে বক্তব্য দেওয়ার জন্য শফিকুল হক মিলনের নাম ঘোষণা করা হলে তিনি বক্তব্য দিতে মঞ্চে ওঠেন। এ সময় মঞ্চের সামনে বসে থাকা বিএনপির নেতা-কর্মীরা মিলনের দিকে স্যান্ডেল ছুড়ে মারেন। এরপর শুরু হয় হট্টগোল ও হাতাহাতি।

নেতা-কর্মীরা জানান, মহানগর বিএনপির সভাপতি পদ থেকে মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে সম্প্রতি শফিকুল হক মিলনকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। বিষয়টি মানতে পারেননি তারা। এ কারণেই তারা মঞ্চে না উঠে প্রতিবাদ জানান।

আওয়ামী লীগ নিয়ে বিএনপির না ভাবলেও চলবে: হানিফ

আওয়ামী লীগ নিয়ে বিএনপির না ভাবলেও চলবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

বিএনপির সমাবেশ থেকে আওয়ামী লীগকে জনবিচ্ছিন্ন বলার জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

হানিফ বলেন, বিএনপিই পরগাছা দল, ক্যান্টনমেন্ট থেকে তাদের সৃষ্টি। তাদের আওয়ামী লীগ নিয়ে না ভাবলেও চলবে। গতকাল কুষ্টিয়ার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, অসাংবিধানিক তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনদিন আসবে না। তাই এ নিয়ে আন্দোলন করে কোনো লাভ নেই।

এ সময় কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলীসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।