নিজ বাইকের তেল পলিথিনে করে বিপাকে পড়া বাইকারকে দিলেন সার্জেন্ট

0

সময় এখন ডেস্ক:

নিজের বাইকের তেল পলিথিনে ভরে ফ্লাইওভারের উপর বিপাকে পড়া আরেক বাইকারকে দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দিলেন পুলিশ সার্জেন্ট শেখ হাবিব।

এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে সেই ঘটনার বেশ কিছু ছবি পোস্ট করে এমনটাই জানালেন উপকৃত সেই যুবক রাহাত ইসলাম ভূঁইয়া। ফেসবুকে তিনি জানান, আজকে এবি পজেটিভ প্লাটিলেট ডোনারের পিপিই এর জন্য এবং Md Alamin Sikder ভাইকে রক্তদান করানোর জন্য পিজি হসপিটালে গিয়েছিলাম আমি।

আসার সময় আমার খেয়াল ছিলোনা বাইকে তেল নেই এবং গুলিস্তান ফ্লাইওভারের উপরে এসে বাইকের তেল শেষ হয়ে যাওয়াতে আমিসহ আমার ভাই Atul Islam আটকে যাই, হঠাৎ বাইকে করে একজন সার্জেন্ট পুলিশ ভাই দূর থেকে আমাদের দেখে বাইক স্লো করে আমাদের জিজ্ঞাসা করেন- কী বাইকের তেল শেষ নাকি!

বললাম- জ্বি তেল শেষ। উনি জিজ্ঞাসা করলেন যে, সাথে কোনো পলিথিন আছে কিনা? বললাম- পলিথিন নেই।

অতঃপর উনি একটা ছোট পলিথিন বের করে ওনার তেলের ট্যাংক থেকে পলিথিনে তেল বের করে নিয়ে আমাদের তেলের ট্যাংকে ট্রান্সফার করেন। অতঃপর জানতে পারি, তার কাছে পলিথিন ছিলো। কারণ এটা উনার কাছে নতুন নয়। আজকে দিনেও অন্যজনকে তেল দিয়েছেন এবং এটা তিনি প্রতিনিয়ত করেন মানুষের উপকারের জন্য।

SK Habib ভাইয়ার আন্তরিকতা দেখে আমি এতটাই মুগ্ধ হয়েছি যে, আমি এখনো মনে করি মানবতার কাজে এখনো অনেক কিছু শেখার আছে। স্যালুট জানাই এমন মানবতার প্রেমিক পুলিশ ভাইকে। এখনো আপনার মত মানুষ আছে বলেই মানুষ এখনো রাস্তায় ঠিকভাবে চলাফেরা কর‍তে পারে। স্যালুট আপনাকে ভাই।

নরসিংদীতে পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষা নিশ্চিতে জীবাণুনা’শক ট্যানেল

নরসিংদীতে করোনা ভাইরাস থেকে পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষা নিশ্চিতে জীবাণুনা’শক ট্যানেলের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার পুলিশ লাইন্স এবং পুলিশ অফিস, নরসিংদীর প্রবেশ পথে জীবাণুনা’শক ট্যানেলের উদ্বোধন করা হয়। এর উদ্বোধন করেন নরসিংদীর পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার।

নরসিংদীর পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার জানান, করোনা পরিস্থিতিতে পুলিশ সদস্যরা মানুষকে ঘরে রাখার চেষ্টায় দিনরাত বাইরে থাকতে হয়। এতে পুলিশ সদস্যরা জীবনের ঝুঁ’কি নিয়ে কাজ করছেন। করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষা পেতে পুলিশ লাইন্স ও পুলিশ অফিস, নরসিংদীর গেইটে জীবাণুনা’শক ট্যানেল স্থাপন করা হয়েছে।

কোন ব্যক্তি ওই ট্যানেলে প্রবেশের সময় লেজার সেন্সর সক্রিয় হয়ে ৩৬০ ডিগ্রি এ্যাঙ্গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে জীবাণুনা’শক স্প্রে হবে। এতে পোশাকে থাকা ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া দূর হবে। এছাড়াও এতে আছে স্যানিটাইজিং কার্পেট যা জুতায় থাকা ভাইরাস দূর করবে। পর্যায়ক্রমে জেলার প্রতিটি পুলিশ ইউনিটে জীবাণুনা’শক ট্যানেল স্থাপন করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।