নকল ও মানহীন সার্জিক্যাল মাস্ক তৈরি ও বিক্রির দায়ে জরি’মানা

0

সময় এখন ডেস্ক:

রাজধানীর নয়াবাজার এবং মিটফোর্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই প্রতিষ্ঠানকে জরি’মানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। নকল ও নিম্ন’মানের মাস্ক তৈরি ও বিক্রি করায় নয়াবাজারের ‘ভাই ভাই প্লাস্টিক প্রোডাক্টস’কে ৭৫ হাজার টাকা এবং মিডফোর্ড এলাকার ‘তামান্না ড্রা’গ হাউজ’কে ২ লাখ টাকা জরি’মানা করা হয়।

রবিবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর থেকে এ অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম। র‌্যাব-১০ এর সহযোগিতায় এ অভিযান পরিচালিত হয় বলে জানান তিনি।

সারওয়ার আলম বলেন, আমরা অভিযান চালিয়ে দেখতে পেয়েছি, নকল সার্জিক্যাল মাস্ক মজুত করে রেখেছে তারা। ব্যবহৃত মাস্ক পুনরায় লন্ড্রি করে আবারও বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে। এছাড়া, অত্যন্ত নোং’রা পরিবেশে নিম্ন’মানের সার্জিক্যাল মাস্ক তৈরি করা হচ্ছিল।

করোনা মোকাবিলায় যেসব সিদ্ধান্ত নিয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় একযোগে কাজ করার ঘোষণা দিয়ে বেশকিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর। সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধন নেওয়া ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও অধিদপ্তরের সমন্বয়ে এসব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করবে।

রবিবার (১৯ এপ্রিল) অধিদপ্তরের মিলনায়তনে ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলায় করণীয়’ বিষয়ক আলোচনা সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সমাজসেবা অধিদপ্তর জানায়, সারাদেশে প্রায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, ক্লাব, সংগঠন, সমিতি এই অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধন নিয়ে বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এ সব স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলোর প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে সভায় একযোগে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় দরিদ্র মানুষকে খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তার বিষয়ে সবাই একমত পোষণ করেন।

সভার উল্লেখযোগ্য সিদ্ধান্তগুলো হচ্ছে— বাংলাদেশ অ্যাম্বুলেন্স মালিক সমিতি কোভিড পজিটিভ ব্যক্তিকে নির্ধারিত হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সেবা প্রদান করবে। সরকারি নিয়মিত ত্রাণ কার্যক্রমের পাশাপাশি সব স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও সংগঠন সারাদেশে নিজ নিজ উদ্যোগে অধিদপ্তরের জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় ও শহর সমাজসেবা কার্যালয় ও স্থানীয় কার্যালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করে কার্যক্রম পরিচালনা করবে। রমজান মাস ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কোনও পরিবার যাতে খাদ্য ঘা’টতিতে না পড়ে, সেদিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখা রাখবে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ মার্চ থেকে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত সমাজসেবা অধিদপ্তর বাংলাদেশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ, স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে সারাদেশে ৭৪ হাজার ৫৩৮টি পরিবারে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে।

এর মধ্যে ঢাকা শহরে ৫ হাজার ৭৬০টি, ঢাকা বিভাগে ১৩ হাজার ৪৮৬টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৪ হাজার ২৪৩টি, খুলনা বিভাগে ৯ হাজার ৯১৪টি, রাজশাহী বিভাগে ৪ হাজার ৭৯টি, বরিশাল বিভাগে ১ হাজার ৪২৫, রংপুর বিভাগে ৩ হাজার ২০টি, সিলেট বিভাগে ১ হাজার ২৬০টি এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১ হাজার ৩৫১টি পরিবার রয়েছে। এ কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলেও জানিয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর।

Spread the love
  • 102
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    102
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।