মুসল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়

0

সময় এখন ডেস্ক:

চীন থেকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘা’তী করোনা ভাইরাসের সংক্র’মণ রো’ধে মসজিদে না গিয়ে মুসল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

আজ সোমবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সাখাওয়াৎ হোসেন স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শুধু মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমরা মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় করবেন। কোনো মুসল্লি মসজিদে গিয়ে জামাতে অংশ নিতে পারবেন না।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ভ’য়ানক করোনা ভাইরাস সংক্র’মণ রো’ধে মসজিদের ক্ষেত্রে খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেম ছাড়া অন্য সব মুসল্লিকে সরকারের পক্ষ থেকে নিজ নিজ বাসায় নামাজ আদায় করতে নির্দেশ দেয়া যাচ্ছে। জুমার জামাতে অংশগ্রহণের পরিবর্তে ঘরে জোহরের নামাজ আদায়ের নির্দেশ দেয়া যাচ্ছে।

এতে আরও বলা হয়, মসজিদে জামাত চালু রাখার প্রয়োজনে খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমরা মিলে ৫ ওয়াক্তের নামাজ অনধিক ৫ জন এবং জুমার জামাতে অনধিক ১০ জন শরিক হতে পারবেন। বাইরের মুসল্লি মসজিদে জামাতে অংশ নিতে পারবেন না।

অন্য ধর্মের অনুসারীদেরও উপাসনালয়ে জমায়েত না হয়ে নিজ নিজ বাড়িতে প্রার্থনার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কোনো ধর্মীয় বা সামাজিক আচার অনুষ্ঠানেও সমবেত না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া সারাদেশে ওয়াজ মাহফিল, তাফসির মাহফিল, তাবলিগি তালিম বা মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা যাবে না বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত বছরের শেষ দিন চীনের উহান শহরে প্রথম নভেল করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। সেখানে ভ’য়ানক অবস্থা সৃষ্টির পর প্রাণঘা’তী ভাইরাসটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে ২ শতাধিক দেশে ছড়িয়েছে অচেনা ভাইরাসটি। তার মধ্যে সবচেয়ে মা’রাত্মক আকার ধারণ করেছে ইতালিসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রেও ভ’য়াবহ আকার ধারণ করেছে ভাইরাসটি। ভাইরাসটিতে আক্রা’ন্ত হয়ে সারা বিশ্বের ৭০ হাজারের বেশি মানুষের মৃ’ত্যু হয়েছে।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশেও প্রথম ৩ জনের দেসে করোনা শনাক্ত হয়। এরপর আজ পর্যন্ত ১২৩ জন ভাইরাসটিতে আক্রা’ন্ত হন। তাদের মধ্যে মা’রা যান ১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টাতেই ৩৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ছোঁয়াচে রোগটির সংক্র’মণ রো’ধে মুসল্লিদের মসজিদে না গিয়ে ঘরে বসে নামাজ আদায়ের নির্দেশ দেয় সরকার।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।