পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর হ’ত্যায় রাজিব গান্ধীসহ ৪ জ’ঙ্গির ফাঁ’সি

0

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড়ের সোনাপাতা এলাকার শ্রী শ্রী সন্ত গৌড়ীয় মঠের অধ্যক্ষ পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায়কে গলাকেটে হ’ত্যা মামলার জেএমবির অন্যতম শীর্ষ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজিব গান্ধীসহ ৪ জ’ঙ্গির ফাঁ’সির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন। রায় পড়ে শোনান ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার রায়। রায় ঘোষণার সময় দ’ণ্ডিতরা কাঠগড়ায় ছিলেন।

২০১৬ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ভোরে পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ উপজেলা সদরের চীন-মৈত্রী সেতু সংলগ্ন সোনাপাতা এলাকায় পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায়কে গ’লাকেটে হ’ত্যা করা হয়। ওই সময় গু’লিবিদ্ধ হন একই মঠের আরেক সেবক। এ ঘটনায় ১০ জনকে আসামি করে হ’ত্যা মামলা করেন নিহ’তের বড় ভাই রবীন্দ্রনাথ রায়। পরে আসামিদের বিরু’দ্ধে অ’স্ত্র ও বি’স্ফোরক আইনে আরও দু’টি মামলা করে দেবিগঞ্জ থানা পুলিশ।

পঞ্চগড় জেলা ও দায়রা জজ আদালতে চাঞ্চল্যকর হ’ত্যা মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। পরে মামলাটি বিচারের জন্য রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়।

এই মামলার আসামি জ’ঙ্গি সংগঠন জেএমবির শীর্ষ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজিব গান্ধী, আলমগীর হোসেন, রমজান আলী, খলিলুর রহমান ও হারেস আলী গ্রেপ্তার হয়ে জেল হাজতে রয়েছেন।

হ’ত্যা মামলায় অভিযুক্ত ১০ আসামির মধ্যে ৪ জন বিভিন্ন সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে ক্রসফায়ারে নিহ’ত হয়েছে বলে জানান তিনি।

কেল্লা বাবার মাজারের পুকুরে মিলল নারীর ডেডবডি‍!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় অ’জ্ঞাত পরিচয়ে (৩০) এক নারীর ডেডবডি উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে পৌরশহরের খরমপুর কেল্লা বাবার মাজার এলাকার একটি পুকুর থেকে ওই নারীর ডেডবডি উদ্ধার করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে খরমপুর কেল্লা বাবার মাজার পরিচালনা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাসান খান খাদেম জানান, ওই নারী মাজারের ভক্ত। দীর্ঘদিন ধরে তিনি মাজারের সাথে সম্পৃক্ত।

সকালে মাজারের পুকুরে কাপড় কাচছিলেন তিনি। এ সময় অসুস্থ হয়ে (মৃগী রোগ) পুকুরের পানিতে পড়ে যান। পরে মাজারে অন্য ভক্ত-আশেকানরা পানি থেকে তোলার আগেই ওই নারী মা’রা যান।

আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহম্মদ নিজামী বলেন, মৃগী রোগী ওই নারী মাজারের আশেকান। কয়েক দিন ধরে তিনি মাজারে অবস্থান করছিলেন।

ময়না তদন্তের জন্য ডেডবডি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। তার নাম-পরিচয় উদ্ঘাটনে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান ওসি।

Spread the love
  • 62
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    62
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।