জুতার ছাপেই ধরা পড়ে গেল মিরাজের বাসার চোর!

0

সময় এখন ডেস্ক:

জাতীয় দলের ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজের কাফরুলের বাসার চুরির ঘটনায় ১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে, তাদের মধ্যে ১ জন এখনও অধরা। জুতার ছাপ দেখে চোর শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানান কাফরুল থানার ওসি সেলিমুজ্জামান।

গ্রেপ্তার হওয়া যুবকের নাম সোহেল রানা। ওই চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার কথা আদালতেও স্বীকার করেছেন সোহেল। আর পলাতক আছেন জামাল নামের আরেকজন, যাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

কাফরুল থানার ওসি সেলিমুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে জুতার ছাপ থেকে সোহেলকে শনাক্ত করা হয়েছে। আসামি সোহেল বৃহস্পতিবার ঢাকার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারো’ক্তিমূলক স্টেটমেন্ট দেন।

মিরাজ পরিবার নিয়ে কাফরুলে ১০ তলা ভবনের একটি ফ্ল্যাটে থাকেন। খেলার জন্য গত ২০-২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি বাসায় ছিলেন না। বাসায় তখন কেউ ছিল না। এই সময়ের মধ্যে মিরাজের বাসায় চুরি হয়। বাসার কাঠের আলমারির ড্রয়ার ভেঙে ২৫ ভরি সোনা, ৩টি ডায়মন্ডের আংটি ও ৬ হাজার মার্কিন ডলার চুরি হয়। এ ঘটনায় মিরাজ বাদী হয়ে রাজধানীর কাফরুল থানা এলাকায় অ’জ্ঞাত চোরের বিরু’দ্ধে মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাফরুল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এমদাদুল হক জানান, মিরাজের বাসার সামনে আরেকটি ফ্ল্যাট রয়েছে। সেই ফ্ল্যাটে কেউ বসবাস করেন না। সরেজমিন জানতে পারেন, জরুরি সিঁড়ি ব্যবহার করে চোর মিরাজের বাসায় ঢুকেছিল। মিরাজের বাসায় একটি জুতার ছাপ ছিল। জরুরি সিঁড়িতেও একই ছাপ দেখতে পান। তখন নিশ্চিত হন, চোর বাইরের কেউ নয়। এই ভবনের কেউ এই চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত।

পুলিশ কর্মকর্তা এমদাদুল হক বলেন, চুরির মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে দেখতে পান, যে জুতা পরে মিরাজের বাসায় ঢুকেছিল, সেটি ছিল বার্মিজ। দু’দিন ভবনের নিচে অবস্থান করেন তিনি। তখন বার্মিজ জুতা পরা সোহেলকে ভবনের নিচে দেখতে পান। পরে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যান।

জিজ্ঞাসা’বাদে সোহেল স্বীকার করেন, তিনি মিরাজের বাসায় চুরির সঙ্গে জড়িত। তার দেয়া তথ্যমতে, মিরাজের বাসায় চুরি যাওয়া সোনা, ডায়মন্ড উদ্ধার করা হয়।

Spread the love
  • 192
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    192
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।