সাংবাদিকের সামনে বিব্রত হয়ে প্রকৌশলীকে ‘বরখাস্ত’ করলেন মেয়র

0

সময় এখন ডেস্ক:

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) এর মেয়র সাঈদ খোকন চলতি মেয়াদের শেষ বাজেট উপস্থাপন করেছেন গতকাল। বাজেট বক্তৃতায় মেয়র দাবি করেন, আগে ৭৫-৮০ শতাংশ রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী ছিল, এখন ৯০ ভাগ রাস্তা উপযোগী।

পরে প্রশ্নোত্তর পর্বে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, আপনি দাবি করছেন ৯০ ভাগ রাস্তা ভালো, কিন্তু গলির রাস্তাগুলোর অবস্থা খুবই খারাপ, সেখানে ৯০ ভাগই অনুপযোগী।

মেয়র বলেন, আমি বলছি ৯০ ভাগ রাস্তা চলাচলের উপযোগী, আপনি বলছেন অনুপযোগী- এটা যদি প্রমাণ দিতে পারেন, যে পুরস্কার চাইবেন আমি দেব। আর ৯০ ভাগ রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী এই কথা অন্তত নগরবাসী বিশ্বাস করবে না?

এর পর প্রশ্নকারী সাংবাদিক বলেন, আমি এক কাউন্সিলরকে প্রশ্ন করেছিলাম তিনি বলেছিলেন, তার ওখানে ৫ বছর ধরে উন্নয়নকাজ হয় না, বরাদ্দ চাইলেও মেয়র বরাদ্দ দেন না।

এ সময় মেয়র হেসে বলেন, আমি বরাদ্দ দিই না! এর পর মেয়র ওই সাংবাদিকের কাছে তার বাসা কোথায় জানতে চান। উত্তরে সাংবাদিক বলেন কাঁঠালবাগান। এর পর মেয়র ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সালাউদ্দিন আহমেদ ঢালীকে বলার জন্য ফ্লোর দেন। উপস্থিত কাউন্সিলর বলেন, আমার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের সব রাস্তাই বেহাল।

তখন মেয়র বলেন, নাম বলেন কোন কোন রাস্তা? কাউন্সিলর এর পর জানান, কলাবাগান, আবাহনী গলি, বশির উদ্দিন জুতার গলি, শুক্রাবাদ, কাঁঠালবাগান ঢাল। এ সময় ওই অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে জবাব চান মেয়র।

অঞ্চল ১-এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সফিউল্লাহ বলেন, অতিবৃষ্টির কারণে এমন হয়েছে। তা ছাড়া রাস্তাগুলো আমাদের প্রকল্পে প্রক্রিয়াধীন।

মেয়র বলেন, এত দিন কেন প্রকল্প নেননি? নো, নো এটা হতে পারে না। আপনাকে এখন থেকেই বরখাস্ত করা হলো। এর পর মেয়র রেগে উপস্থিত প্রধান নির্বাহীসহ অন্যদের নির্দেশ দেন তার বরখাস্তের পেপার বাস্তবায়ন করার জন্য।

Spread the love
  • 229
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    229
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।