ক্রমাগত ধ’র্ষণে ১২ বছরের শিশু অন্তঃসত্ত্বা, ঈদের দিন গ্রেপ্তার ধ’র্ষক

0

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১২ বছরের এক শিশুকে দিনের পর দিন ধ-র্ষণ করেছে মোহন্ত (২৩) নামে এক যুবক। এতে ১২ বছরের ওই শিশু অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে।

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ওই যুবককে অভিযুক্ত করে রোববার (১১ আগস্ট) বিরামপুর থানায় নারী ও শিশু নি-র্যাতন দমন আইনে মামলা করেন শিশুটির মা। মামলার পর অভিযান চালিয়ে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে সোমবার (১২ আগস্ট) জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

বিরামপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন, ৮ মাস ধরে ওই শিশুকে ধ-র্ষণ করেছে মোহন্ত হাসদা নামে একই এলাকার এক যুবক। শনিবার বিয়ের দাবি নিয়ে ওই যুবকের বাসায় গেলে তার বাবা-মা মেয়েটিকে বাসা থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় রোববার ওই যুবককে অভিযুক্ত করে মামলা করেন মেয়েটির মা। পরে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ।

শিশুটির মা বলেন, অনেকদিন ধরে আমার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধ-র্ষণ করে মোহন্ত। কয়েকদিন ধরে মেয়ের শারীরিক পরিবর্তন ঘটলে বিষয়টি আমাকে জানায়। বিষয়টি যাচাই করার জন্য শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে আল্ট্রাসনোগ্রাম করানো হয়। পরে রিপোর্টে মেয়েটি ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে নিশ্চিত করেন ডাক্তার।

বিরামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ধ-র্ষণের শিকা-র মেয়েটির মায়ের মামলার পর ওই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার সকালে তাকে দিনাজপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মেয়েটিকে ধ-র্ষণের কথা স্বীকার করেছে মোহন্ত।

ওয়্যারড্রোব থেকে পাওয়া গেল ইয়া-বা

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে ৮ হাজার ২০০ পিস ইয়া-বাসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) খিলগাঁও থানা পুলিশ। গ্রেপ্তাররা হলেন-আবুল কাশেম (৫০), মো. হাসান (৩০) ও ফাতেমা বেগম (৩৫)।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) ওবায়দুর রহমান জানান, সোমবার (১২ আগস্ট) রাতে খিলগাঁও থানার ৫৭/১ মেরাদিয়া নয়াপাড়ার বিসমিল্লাহ স্টোরের সামনে পাকা রাস্তার ওপর অভিযান চালিয়ে আবুল কাশেম ও হাসানকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ।

এ সময় কাশেমের হেফাজত থেকে ২ হাজার ৫০০ পিস ও হাসানের হেফাজত হতে ১ হাজার ৫০০ পিস ইয়া-বা উদ্ধার করে খিলগাঁও থানা পুলিশ।

পরবর্তী সময়ে তাদের দেয়া তথ্য মতে, ওই রাতেই রামপুরার বনশ্রীর একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ফাতেমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার ওয়্যারড্রোব থেকে আরও ৪ হাজার ২০০ পিস ইয়া-বা উদ্ধার করে পুলিশ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।