মাত্র ১৫০ টাকায় সারা মাস কথা বলা যাবে, লাইন রেন্টও নেই

0

সময় এখন ডেস্ক:

দেশে মোবাইল ফোন সহজলভ্য হওয়ার পরেও অনেকদিন পর্যন্ত সরকারি ল্যান্ড ফোনের প্রতি মানুষের আস্থা ছিল অনেক বেশি। সংযোগ পাওয়ার জন্য নির্ধারিত ফি’র বাইরেও খরচ করতে হতো অনেক। কিন্তু মোবাইল ফোন অপারেটরদের কল চার্জ কমতে শুরু করায় ল্যান্ড ফোন হারায় তার জৌলুস। অনেকে তবুও ধরে রেখেছিলেন সংযোগ। মাসে মাসে লাইন রেন্টের বিনিময়ে ঘরের শোভা বর্ধনকারী অনুষঙ্গে পরিণত হয় এক সময় তা।

এবার সরকার কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে আবারও ল্যান্ড ফোনকে জনপ্রিয় করতে। তাই সরকারি ল্যান্ড ফোন সেবাদাতা সংস্থা বিটিসিএল (বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড) এর মাসিক লাইন রেন্ট বাতিল করা হয়েছে। একই সঙ্গে মাসিক ১৫০ টাকায় বিটিসিএল থেকে বিটিসিএলে যত খুশি তত মিনিট কল করা যাবে।

বুধবার (৭ আগস্ট) সচিবালয়ে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার সভায় সভাপতিত্ব করেন। মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বিটিসিএল থেকে অন্য যে কোনো অপারেটরে মাত্র ৫২ পয়সা মিনিট কল চার্জ নির্ধারণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আগামী ১৬ আগস্ট থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। বিটিসিএল টেলিফোন সেবা আরও জনবান্ধব ও সময়োপযোগী করতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ।

বর্তমানে বিটিসিএলের ফোনের মাসিক লাইন রেন্ট ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনায় ১৬০ টাকা, অন্য জেলা শহরে ১২০ এবং উপজেলায় ৮০ টাকা ছিল।

বিটিসিএল থেকে বিটিসিএলে কলরেট সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ৩০ পয়সা এবং বাকি সময় ১০ পয়সা। বর্তমানে বিটিসিএল থেকে অন্য যে কোনো অপারেটরে চার্জ ৮০ পয়সা। বর্তমানে বিটিসিলের গ্রাহক সংখ্যা ৬ লাখের মতো।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বিটিসিএলকে জনবান্ধব এবং লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সংশ্লিষ্টদের আরও আন্তরিকতা, নিষ্ঠা এবং সর্বোচ্চ সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, সর্বোচ্চ গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটিকে জনবান্ধব সেবা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সম্ভাব্য সব কিছু করা হবে।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল মাহমুদসহ ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বিটিসিএলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।