হোয়াইটওয়াশের ধাক্কা টাইগারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

সিরিজ শুরুর আগে র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের অবস্থান আরও শক্তপোক্ত করার সুযোগ ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য। তবে শঙ্কা ছিলো উল্টোটাও। নেতিবাচক ফলের মাশুল হিসেবে খোয়াতে হতো রেটিং পয়েন্ট। হয়েছেও ঠিক তাই।

বাংলাদেশের ঠিক নিচেই ছিলো শ্রীলঙ্কা। রেটিং ছিলো ৭৯। গতকাল পরাজিত হওয়ায় মূল্যবান ৪টি রেটিং পয়েন্ট হারায় বাংলাদেশ। অপরদিকে লঙ্কানদের নামের পাশে যোগ হয়েছে ৩টি রেটিং পয়েন্ট। টাইগাররা জিতলেও রেটিং পয়েন্ট হারাতে হতো। তবে সেটা একটু কম, ২ পয়েন্ট।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ফল সবারই জানা। ঘরের মাঠে প্রায় ৪৪ মাস পর ওয়ানডে সিরিজ জিতে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করেছে স্বাগতিকরা। শ্রীলঙ্কার মাটিতে প্রায় ১২ বছর পর সিরিজ হার এটি টাইগারদের।

এ সিরিজে কোনো ম্যাচ না জেতায় র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের অবস্থানে কোনো হেরফের হয়নি বাংলাদেশের। তবে রেটিং পয়েন্টের ব্যবধানে কমে এসেছে অনেকটাই। নিজেদের ৭ম অবস্থান ধরে রাখলেও, মূল্যবান ৪টি রেটিং পয়েন্ট হারিয়েছে বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পরেও বাংলাদেশ দলের রেটিং পয়েন্ট ছিলো ৯০, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে জিতলে রেটিং বেড়ে হতে পারতো ৯৩। কিন্তু উল্টো ০-৩ ব্যবধানে হেরে যাওয়ায় খোয়াতে হয়েছে ৪ রেটিং পয়েন্ট।

এদিকে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করে ৩ রেটিং পয়েন্ট পেয়েছে শ্রীলঙ্কা, ৮২ রেটিং নিয়ে অষ্টম অবস্থানে রয়েছে। সিরিজ শুরুর আগে বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবধান ১১ রেটিংয়ের থাকলেও, সেটি কমে এখন হয়েছে মাত্র ৪।

আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিং

১. ইংল্যান্ড – ১২৫ রেটিং, ২. ভারত – ১২২ রেটিং, ৩. নিউজিল্যান্ড – ১১২ রেটিং, ৪. অস্ট্রেলিয়া – ১১১ রেটিং, ৫. দক্ষিণ আফ্রিকা – ১১০ রেটিং, ৬. পাকিস্থান – ৯৭ রেটিং, ৭. বাংলাদেশ – ৮৬ রেটিং, ৮. শ্রীলঙ্কা – ৮২ রেটিং, ৯. ওয়েস্ট ইন্ডিজ – ৭৭ রেটিং, ১০. আফগানিস্তান – ৫৯ রেটিং।

এছাড়া আয়ারল্যান্ড ৫১, জিম্বাবুয়ে ৪৪, নেদারল্যান্ডস ৩৭, স্কটল্যান্ড ৩৬, নেপাল ১৯, আরব আমিরাত ১০ ও পাপুয়া নিউগিনির ঝুলিত রয়েছে ৬ রেটিং পয়েন্ট।

বিমান দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল বাংলাদেশ দল

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বন্ধুকধারীর হাম-লা থেকে প্রাণে বেঁচে যাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এবার বিমান দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে।

শ্রীলঙ্কা সফর শেষে আজ দেশে ফেরার কথা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের। শ্রীলঙ্কার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ফ্লাইট ছিল তামিম-মুশফিকদের। যথাসময়ে দলের খেলোয়াড়রা বোর্ডে উঠেছিল।

কিন্তু সিটে বসতেই শুনেন দুঃসংবাদ! হঠাৎ করেই ক্রিকেট দলকে বহনকারী বিমানে (ইউএল ১৮৯) যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা দেয়।

সকাল ৮টায় পাইলট ঘোষণা দেন- বিমানের বাম উইংয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে। তারপর বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের নামিয়ে নেওয়া হয় বিমান থেকে।

ভাগ্য ভালই বলতে হবে তামিমদের। বিমান আকাশে উড়লে বড় দুর্ঘটনায় পড়তে পারতেন তারা। বিমানটিতে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা ছাড়াও ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা।

নতুন একটি ফ্লাইট দেওয়া হয়েছে। সেটা স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে ছাড়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা সম্ভব হয়নি।

স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ২০ মিনিটে ফ্লাইট ছাড়ে। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে সব মিলিয়ে আড়াই ঘণ্টারও বেশি দেরি হয়। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে দুপুর আড়াইটার সময় বাংলাদেশ দলকে বহনকারী বিমান হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে।

Spread the love
  • 97
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    97
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।