প্রাণের অলটাইম বনের প্যাকেটে সাপ, সংজ্ঞাহীন ক্রেতা (ভিডিও)

0

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

প্রাণের অলটাইম চকো ভেনিলা বনের ভেতর এবার মিললো বিষাক্ত সাপ। বন কিনে খেতে গিয়ে জ্ঞান হারালেন হবিগঞ্জ শহরের সৈয়দ ফরিদ মিয়া নামের এক ক্রেতা।

শুক্রবার ১০ জুলাই বিকেলে হবিগঞ্জ শহরের বাইপাস সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এতে করে ক্রেতাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে আত-ঙ্ক। প্রাণের এমন জ্ঞানহীন কর্মকান্ডে ক্ষুদ্ধ ক্রেতা সাধারণ।

হবিগঞ্জ শহরের মাহমুদাবাদ এলাকার বাসিন্দা ও বাইপাস সড়কের ব্যবসায়ী সৈয়দ ফরিদ মিয়ার কাছ থেকে সংগৃহীত একটি ভিডিও ক্লিপ থেকে দেখা যায় প্রাণের অলটাইম চকো ভেনিলা বনের ভেতর থেকে একটি ছোট বিষাক্ত সাপ বেরিয়ে আসছে। যা দেখে যে কেউ আত-ঙ্কিত হবেন।

সাপের ছোবল খেলে হয়তো মৃ-ত্যুও হতে পারতো ব্যবসায়ী ফরিদের। আর এমন একটি স্পর্শকা-তর বিষয়কে যেন তোয়াক্কাই করছে না প্রাণ কর্তৃপক্ষ। ব্যবসায়ী ফরিদসহ স্থানীয়দের দাবী প্রাণের বি-রুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে সৈয়দ ফরিদ মিয়া জানান, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শহরের বাইপাস সড়কের জামাল মিয়ার মালিকানাধিন পঙ্খিরাজ স্টোর থেকে দুটি বন ক্রয় করেন তিনি। ওই দোকানে বসেই তিনি ও তার অপর এক বন্ধু মিলে বনগুলো খাওয়া শুরু করেন।

এ সময় তার কামড়ের সাথে বনের ভেতর থেকে সাপ প্রজাতির একটি বিষাক্ত প্রাণী বেরিয়ে আসছে। এ সময় তিনি তা দেখে বমি করে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। তাৎক্ষণিক স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেন। সৈয়দ ফরিদ মিয়া আরো জানান বর্তমানেও তার কাছে সাপসহ বনটি সংরক্ষিত আছে।

এ ব্যাপারে শহরের স্থানীয় ডিলার শ্রীনিবাস দাসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে প্রাণের ব্যবস্থাপক জিয়াউল হকের সাথে শুক্রবার রাতে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে জানাবো। পরে শুক্রবার রাত ৯টা থেকে রবিবার রাত পর্যন্ত তাকে একাধিক বার ফোন দেয়া হলেও তিনি আর রিসিভ করেননি।

বিডি জার্নাল

Spread the love
  • 2.1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2.1K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।