পাবনায় প্রাইভেট কারসহ ৪ ইরানি ‘প্রতারক’ আটক

0

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানা পুলিশ প্রতারণার অভিযোগে একটি প্রাইভেট কারসহ ৪ বিদেশিকে আটক করেছে। কাশীনাথপুর ট্রাফিক মোড় থেকে শনিবার বেলা আড়াইটায় তাদের আটক করা হয়। তারা সবাই ইরানের নাগরিক। তারা হলেন- হামিদ, হোসাইন, মোর্তজা ও সিয়াবত। তাদের সবার বয়স ৩০-৪০ বছরের মধ্যে।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, ৪ বিদেশি ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক হয়ে পাবনা থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন। বেলা ২টার দিকে সুজানগর উপজেলার চিনাখড়া বাজারে ব্যবসায়ী মতিউল ইসলামের দোকানে গিয়ে বাংলাদেশি ২টি ৫০০ টাকার নোট ভাঙানোর কথা বলে খুচরা টাকা নিয়ে নেন। কিন্তু তারা ৫০০ টাকার ওই নোট ২টি না দিয়ে দ্রুত গাড়ি চালিয়ে সটকে পড়েন।

ব্যবসায়ী মতিউল ইসলামের করা অভিযোগের বরাত দিয়ে ওসি আরও জানান, বিদেশিরা দোকান থেকে চলে আসার পর ওই ব্যবসায়ী তার ক্যাশ বাক্সে ১২ হাজার টাকা কম দেখতে পান। এতে তার সন্দেহ হয় এবং তিনি আমিনপুর থানায় এই বিদেশিদের ছিনতাইকারী সন্দেহে অভিযোগ দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ কাশীনাথপুর মোড় থেকে প্রাইভেট কারটিসহ ওই ৪ বিদেশিকে চ্যালেঞ্জ করে আমিনপুর থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায়। আমিনপুর থানার ওসি আরও জানান, তাদের কাছে থাকা কাগজপত্র অনুযায়ী তারা ১৯ মে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। আর ১৩ জুন ঢাকার রেন্ট এ কার থেকে একটি গাড়ি ভাড়া নেন। বিদেশিদের ভাড়া নেয়া কারটিও চালাচ্ছিলেন তাদেরই একজন।

এদিকে সাঁথিয়া উপজেলার কাবারিকোলা গ্রামের বাসিন্দা ও কাশীনাথপুরের গোল্ডলিফ সিগারেট কোম্পানির এসআর (সেলস রিপ্রেজেনটেটিভ) রওশন আলী জানান, এ রকম একটি ইরানি গ্রুপ ৩ দিন আগে তাকে বেশি কমিশন দিয়ে ডলার ভাঙিয়ে নেয়ার কথা বলে ৪৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু দিয়ে যান জাল ডলার, যা পরে শনাক্ত করা হয়। তিনি বলছেন, এরা সেই গ্রুপের লোক কি না- তা জানার জন্য তার কোম্পানির লোক আমিনপুর থানায় যাচ্ছেন।

ওসি মোমিনুল জানান, তারা ইংরেজি ভাষা বোঝেন না। তাই আরবিতে পারদর্শী ব্যক্তি থানায় আনা ছাড়া তাদের সম্বন্ধে বিস্তারিত জানাও সম্ভব হচ্ছে না। যেটুকু তারা ভাব বিনিময় করতে পেরেছেন, তাতে তারা কারো টাকা নিয়ে পালানোর কথা অস্বীকার করেছেন। আর ঢাকার সংশ্লিষ্ট রেন্ট এ কার ব্যবসায়ী বিদেশিদের একজনের পাসপোর্ট রেখে দিয়েছেন বলে পুলিশকে জানিয়েছেন।

ওসি আরও জানান, তাদের বিরুদ্ধে বিস্তারিত খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। এরা প্রতারক চক্রের লোক হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। না হলে বিদেশি হিসেবে সসম্মানে ছেড়ে দেওয়া হবে।

Spread the love
  • 80
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    80
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।