শুধু ভিক্ষা করেই ১৭ দিনে ৪২ লাখ টাকা আয়!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

গত রমজান মাসে ইউরোপের এক নারী অনলাইনে ভিক্ষাবৃত্তি করে প্রায় ৪২ লাখ টাকা আয় করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। তবে দেশটিতে অনলাইনে ভিক্ষাবৃত্তি শাস্তিযোগ্য অপরাধ হওয়ায় ওই নারীকে আটক করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই নারী প্রতারণা করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সন্তানের ছবি পোস্ট করে সাহায্য চেয়ে এ বিপুল অর্থ আয় করেন।

দুবাই পুলিশ গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ওই নারী তার ছেলের ছবি দিয়ে তাকে ভরণপোষণের জন্য অর্থ সাহায্য চাইতেন। এতে দয়া পরবশ হয়ে মানুষ সাহায্য পাঠাতে থাকে। ফলে মাত্র ১৭ দিনে ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের (৪২ লাখ টাকা) বেশি আয় করেন ওই নারী।

নিজেকে তিনি তালাকপ্রাপ্তা নারী হিসেবে তুলে ধরেন। প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে সন্তানের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে আবেদন করেন ওই নারী।

তবে তার সাবেক স্বামীর অভিযোগ, সন্তান ওই নারীর কাছে নেই। সন্তানের ভরণপোষণ করছেন তিনি। ওই নারী প্রতারণা করে সন্তানের ছবি পোস্ট করে ভিক্ষা করছেন।

পুলিশ আরও জানায়, ওই নারী টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকে নানা পোস্ট দিয়ে অর্থ সাহায্যের আবেদন করেন। তবে ওই নারীর বয়স ও জাতীয়তা প্রকাশ করা হয়নি।

দুবাই পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জামাল আল সলিম আল জালাফ বলেন, অনলাইনে অ্যাকাউন্ট খুলে তাতে সন্তানের ছবি দিয়ে তাকে বড় করার জন্য অর্থ সাহায্য চান ওই নারী। তিনি ডিভোর্সের পর নিজে সন্তান পালন করছেন। পরে তার সাবেক স্বামী ই-ক্রাইম প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অভিযোগ করেন এবং সন্তান তার কাছে থাকার প্রমাণ দেন।

দুবাই পুলিশের সাইবার অপরাধ বিভাগের ডেপুটি পরিচালক ক্যাপ্টেন আবদুল্লাহ আল সেহি বলেন, অনলাইনে ভিক্ষা করা দেশটিতে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এতে জেল বা জরিমানার বিধান রয়েছে।

প্রসঙ্গত গত রোজার মাসে দেশটিতে ১২৮ ভিক্ষুককে আটক করা হয়েছে।

সূত্র: গালফ নিউজ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।