পাকিস্থানের জার্সি পরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বিরাট কোহলি!

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

ভারত-পাকিস্থানের খেলা মানেই টান টান উত্তেজনা। নিজ দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে তা ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের দেশেও। তবে এবার লাহোরের রাজপথে মোটাসাইকেল নিয়ে দিব্বি ঘুরে বেড়াচ্ছেন এক ভারতীয় সমর্থক। পাকিস্থানের জার্সিতেই তিনি লিখে নিয়েছেন বিরাট কোহলির নাম। জার্সিটির নাম্বারও ১৮, যা কোহলি ব্যবহার করেন।

পাকিস্থানের জিয়ো টিভির ক্রীড়া সাংবাদিক সোহেল ইমরানের তোলা এমনই একটি ছবি অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে। যাতে দেখা যায়, বিরাট কোহলির ওই ভক্ত ‘বিরাট’ লেখা জার্সি পরে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন। বিরাট কোহলির ওই ভক্তের কোনো পরিচয় জানাতে পারেননি সোহেল ইমরান।

আগামী ১৬ জুন বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্থান মুখোমুখি হবে। এর আগে লাহোরের রাস্তায় এভাবে পাকিস্থানের জার্সি আর তাতে বিরাটের নাম দেখে বেশ মজাই পাচ্ছেন দুই দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। তবে এ নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেছে উগ্রপন্থী জঙ্গী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিন। তারা একে পাকিস্থানের মাটিতে ভারতের আগ্রাসন বলে মন্তব্য করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এবারের বিশ্বকাপে শুরু থেকেই ভারত ভালো অবস্থান রয়েছে। সাউথ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়াকে খুব সহজেই ধরাশায়ী করতে পেরেছে কোহলি বাহিনী। বিপরীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে শোচনীয় হারের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে পাকিস্থান। দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ইমরান খানের উত্তরসূরীরা। ওই ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ধরাশায়ী করে সরফরাজ বাহিনী। তবে ৩য় ম্যাচে বৃষ্টির কারণে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে খেলতে পারেনি পাকিস্থান। পরিত্যাক্ত হয় ম্যাচটি।

১৯৯২ সালে প্রথমবার মুখোমুখি হওয়া থেকে বিশ্বকাপে আজ পর্যন্ত একবারও ভারতের বিরুদ্ধে জিততে পারেনি পাকিস্থান। তবে এবারের বিশ্বকাপে নতুন স্বপ্ন দেখছেন পাকিস্থান ভক্তরা। কারণ ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপেও প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে পাকিস্থান হেরেছিল। আর একই আসরে তৃতীয় ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছিল।

ওই বিশ্বকাপেই ইমরান খানের হাত ধরে বিশ্বকাপ ছিনিয়ে নিয়েছিল পাকিস্থান। সে সূত্র ধরে আবারও বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখছে পাক ভক্তরা।

সূত্র: লেটেস্ট লি

Spread the love
  • 112
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    112
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।