শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে পুরনো রূপে ফিরতে চান তামিম

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

বিশ্বকাপে প্রথম তিন ম্যাচে তামিম ইকবালের সংগ্রহ ১৬, ২৪, ১৯। সোজা কথায় বলা যায়, বৈশ্বিক আসরে এখনও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি বাংলাদেশ দলের এ ব্যাটিং নিউক্লিয়াস।

তাই রানে ফেরার তাগিদ অনুভব করছেন এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচেই পুরনো রূপে ফিরতে চান তিনি। সেজন্য অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ব্রিস্টলে মাঠে নামছে টাইগাররা। ম্যাচটি সামনে রেখে রোববার দুপুর ১২টায় কার্ডিফ থেকে রওনা দিয়ে দেড়টায় ব্রিস্টলে পৌঁছেছে টিম টাইগার্স। তখন ঝুম বৃষ্টি। সেটি উপেক্ষা করেই টিম হোটেল থেকে বেরিয়ে দলের সদস্যরা ফিটনেস নিয়ে কাজ করেন। দীর্ঘ সময় ব্যাটিং অনুশীলন করেন তামিম ইকবাল।

বাজে পারফরমেন্সে ধৈর্য হারাচ্ছেন না তামিম ইকবাল। বিশ্বাস আছে নিজের ব্যাটিংয়ের উপর। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষের ম্যাচেই রানে ফিরতে চেষ্টা করে যাচ্ছেন এই ওপেনার। তামিম মনে করেন, তিনিসহ যারা খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন, তারা জ্বলে উঠলেই স্বরূপে ফিরবে বাংলাদেশ।

তামিম বলেন, ‘যেহেতু এটা বিশ্বকাপ, সে কারণে মনে হয় ধৈর্য জিনিসটা কম হয়ে যায়। এটাই বলব, সবাইকে ধৈর্য ধরতে হবে। খালি আমার প্রতি না, সবার প্রতি।’

তামিম ইকবাল বলেন, ‘বিশ্বকাপ একটা বড় স্টেজ। যেখানে সবাই পারফর্ম করতে চায়, সবাই ভালো করতে চায়। আমারো অনেক প্রত্যাশা আছে আমি ভালো করতে চাই। অনেক সময় অনেক কিছু চেষ্টা করেও হয় না। আমাদের কাজ হল চেষ্টা করতে থাকা, কোনো না কোনো সময় তো হবে। আমার ফোকাস পুরোপুরি অনুশীলনের দিকে। যে ভুলগুলো করছি যতটুকু মিনিমাইজ করা আর সে রকম স্টার্ট পেলে দেখা যাক ইনশাল্লাহ।’

২০১৮ সালে বিশ্বক্রিকেটে ওপেনারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গড় ছিল তামিমের ব্যাটে; প্রায় ৫৯।

এদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে একাদশে পরিবর্তন আনতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট। একাদশ থেকে বাদ দেয়া হতে পারে মিঠুনকে। মিঠুন ৩ ম্যাচে করেছেন ২১, ২৬, ০ রান। কাজেই এ মুহূর্তে তাকে একাদশে রাখার প্রয়োজন দেখছে না টিম ম্যানেজমেন্ট। মিঠুনের জায়গায় নেয়া হতে পারে সাব্বির রহমান কিংবা লিটন দাসের কোনো একজনকে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।