মোদির আমন্ত্রণে শপথ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী

0

সময় এখন ডেস্ক:

আগামী ৩০ মে দ্বিতীয় মেয়াদে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করবেন নরেন্দ্র মোদি। ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করবেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদি যখন শপথ গ্রহণ করেছিলেন তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সে সময় তিনি জাপানে সফরে থাকায় তার পরিবর্তে স্পিকার শিরীন শারমিন সে অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, এ বছরও ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদি যখন শপথ নেবেন সে সময় আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাপান সফরে থাকবেন। আর স্পিকারের পূর্ব নির্ধারিত আরেকটি অনুষ্ঠান থাকায় তিনিও দিল্লি যেতে পারবেন না। ফলে এবার কেবিনেটের জ্যেষ্ঠমন্ত্রী হিসেবে মোজাম্মেল হক যাচ্ছেন মোদির শপথ অনুষ্ঠানে।

টেন্ডুলকার-কোহলির টুইটের জবাবে যা বললেন মোদি

ভারতে লোকসভা নির্বাচনে টানা দ্বিতীয়বার জয় পেয়েছে বিজেপি। পরপর দুই মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হলেন নরেন্দ্র মোদি। তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের মাস্টার ব্লাস্টার ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার ও বিরাট কোহলি। সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে এ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তারা।

টেন্ডুলকার টুইটবার্তায় লেখেন, লোকসভা নির্বাচনে জয় পাওয়ায় হৃদয় থেকে বিজেপি ও নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা। পরাক্রমশালী ও সুন্দর ভারতের জন্য গোটা দেশের মানুষ আপনার সঙ্গে রয়েছে।

ভারতীয় ক্রিকেট ঈশ্বরের টুইটের জবাবও দিয়েছেন মোদি। তিনি বলেন, শুভেচ্ছার জন্য ধন্যবাদ। গেল ৫ বছরে অনেক কাজ হয়েছে। দেশের উন্নয়নে আরও অনেক কাজ বাকি। নিজেদের সেরাটা দিয়ে দেশের জন্য কাজ করে যাব।

বিশ্বকাপ খেলতে এখন ইংল্যান্ডে রয়েছে ভারত দল। সেখান থেকে টুইটবার্তায় কোহলি লেখেন, নরেন্দ্র মোদিজিকে শুভেচ্ছা। আমাদের বিশ্বাস, আপনার দেখানো পথে ভারত নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে।

টেন্ডুলকারের মতো কোহলিরও টুইটের জবাব দিয়েছেন ভারতের নয়া প্রধানমন্ত্রী মোদি। তিনি লেখেন, একইভাবে দেশের সেবায় থাকব আমি। এ নির্বাচনে আসল চ্যাম্পিয়ন টিম ইন্ডিয়াই। আমার সরকার দেশবাসীর ভালো থাকা এবং সমাজের উন্নতির জন্য কাজ করে যাবে। দেশের মানুষ ভরসা রেখেছেন। এর মান রাখতে কোনো ত্রুটি রাখব না।

৫ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে ভারত। এর আগে আগে নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে টিম ইন্ডিয়া।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।