কোটি টাকার নকল ওষুধ বিক্রি, মিটফোর্ডে ৩ জনকে কারাদণ্ড

0

সময় এখন ডেস্ক:

নকল ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রয় করায় বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিটফোর্ডে শাকিল মাহমুদ, পাবেল বর্মন ও মোসারফ হোসেন নামে ৩ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। একই সঙ্গে তাদের ২৪ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। এ সময় ১ কোটি টাকার নকল ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধও জব্দ করে ভ্রাম্যমান আদালত।

র‌্যাব-১০ এবং ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমান আদালতটি পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

এছাড়া, বগুড়া শহরের গোহাইল সড়কের একটি ওষুধের গুদামে থেকে ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে ওষুধ জব্দের পাশাপাশি আদালত ওই গুদামের মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। জব্দ হওয়া এসব ওষুধের গুদামটি শহরের গোহাইল সড়কের অনন্য মেডিকেল নামের একটি দোকানের। ওই দোকানের মালিকের নাম শামছুর রহমান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাজারে অনুমোদন নেই এমন বিদেশি ওষুধ রাখার অভিযোগ পেয়ে সেখানে অভিযান চালান জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জহুরুল ইসলাম।

অভিযানে বগুড়া জেলা ড্রাগ সুপার আহসান হাবীবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও ছিলেন।

নিখোঁজের ১০ দিন পর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ উদ্ধার

নিখোঁজের ১০ দিন পর রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এলাকা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইসমাইল হোসেন জিসানের (২৪) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাথোরা এলাকার জনৈক জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় হাসিবুল ইসলাম নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গাছা থানার এসআই ফোরকান জানান, ১২ মে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এলাকা থেকে নিখোঁজ হন ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র ইসমাইল হোসেন জিসান। পরদিন গাছা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা সাব্বির হোসেন শহিদ।

এর ৪ দিন পর ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় আরেকটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। শেরেবাংলা থানার এসআই তোফাজ্জল হোসেন জানান, জিডির সূত্র ধরে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার ও গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, ঘটনায় জড়িত একজন গাছা থানা এলাকায় অবস্থান করছে। সে মধ্য কামারজুরি বাজার এলাকায় খাবার হোটেলের ব্যবসা করে এবং ওই এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের বাসায় ভাড়া থাকে।

পরে গাছা থানার সহযোগিতা নিয়ে বুধবার রাতে জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ি থেকে হাসিবুল ইসলাম নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। হাসিবুলের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার কক্ষ থেকে নিখোঁজ জিসানের মোটরসাইকেল ও ওই বাসার সেপটিক ট্যাংক থেকে জিসানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইসমাইল হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, সিজান পড়াশোনার পাশাপাশি রাইড শেয়ারিং অ্যাপের মাধ্যমে মোটরসাইকেলে যাত্রী পরিবহন করতেন।

Spread the love
  • 729
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    729
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।