নোয়াখালীতে ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন, ৮ জন আটক

0

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার অন্তর্গত চৌমুহনী পৌরসভায় জুহায়ের হোসেন (২০) নামের এক কলেজ ছাত্রকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৪ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

এর আগে রাত সাড়ে ৮টার দিকে চৌমুহনী পৌরসভার আলীপুর দিঘীর পাড়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

নিহত জুহায়ের হোসেন ওই এলাকার বেলাল হোসেনের ছেলে এবং নোয়াখালী সরকারি কলেজের ছাত্র ছিল। আটকদের মধ্যে ২ জনের নাম জানা গেছে। তারা হলো- মিরওয়ারিশপুর এলাকার আজিম হোসেনের ছেলে আবিদ হোসেন ও তার সহযোগী ফাহিম।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, কয়েকদিন আগে আটক আবিদের বন্ধু রাকিবকে মারধর করা হয়। এজন্য কলেজছাত্র জুহায়েরকে দায়ী করে রাতে তাকে জেরা করতে দিঘীরপাড়ে যায় আবিদ, আশ্রাফ, জনি, ফাহিম ও তার কয়েকজন বন্ধু। জেরার এক পর্যায়ে জুহায়ের, আবিদ ও তাদের বন্ধুদের মধ্যে তর্কাতর্কি এবং পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে জুহায়েরকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বেগমগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. শাহজাহান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে দুইপক্ষের মধ্যে হাতাহাতির পর জুহায়েরকে পেছন থেকে ধরে নিয়ে তার বুকে ছুরি মারে আবিদ। পরে জুহায়েরকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার পর ঘটনাস্থলের আশপাশে অভিযান চালিয়ে ২ জনকে এবং নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা আরও ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সাংবাদিক-ম্যাজিস্ট্রেটের পরিচয়ে চাঁদাবাজি, ২ প্রতারক গ্রেপ্তার

কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার উপজেলার সদর থানা পুলিশ সাংবাদিক ও ম্যাজিষ্ট্রেট পরিচয় দিয়ে প্রতারণার দায়ে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। গতকাল সোমবার বিকেলে উপজেলার ভানী ইউনিয়নের খাদঘর এলাকায় সাংবাদিক ও ম্যাজিষ্ট্রেট পরিচয়ে চাঁদা দাবী করার সময় স্থানীয়রা তাদের আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

আটককৃতরা হলেন- কুমিল্লা লালমাই এলাকার শিকারীপাড়া গ্রামের আমির হোসেন’র পুত্র আব্দুল মোতালেব (২৯)। সে দৈনিক বাংলার আলোড়ন পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধির পরিচয় দেয়। অপরজন কুমিল্লা কোতয়ালী থানার রাজগঞ্জ এলাকার আক্তারুজ্জামান’র পুত্র আব্দুল্লাহ আল মনসুর (২৮)। সে দৈনিক ডাক প্রতিদিন ও দৈনিক বাংলার আলোড়ন পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দেয়।

স্থানীয়রা জানান, ওরা কখনো ম্যাজিষ্ট্রেট, কখনো সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারণা করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এবার বিভিন্ন বাড়ি, ইউপি অফিস, ভূমি অফিসে ঢুকে চাঁদাবাজী করার সময় তাদের আচরন ও অসংলগ্ন কথাবার্তায় সন্দেহ হলে তাদের আটক করেন।

এর আগে রোববার (১২ মে) খাদঘর আবুর বাড়ির বাগানের লিচু, অলিউল্লাহর বাড়ির গাছের ১০টি ডাব, বড়বাড়ি মসজিদের নারিকেল গাছ থেকে ১০টি ডাব, ফকির বাড়ি থেকে ৮টি কাঁঠাল, মাদ্রাসার ডাব গাছ থেকে ১০টি ডাব নিয়ে যায়।

একই কৌশলে ভাণী ইউনিয়ন পরিষদ সচিব মনির হোসেন থেকে ৫শত টাকা এবং ভূমি অফিস’র নায়েব এমদাদুল থেকে ৫শত টাকা আদায় করে একটি মনোহরী দোকানে অবৈধ মাল আছে বলে ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করলে স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। এসময় দলিল লিখক ও ভানী ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগ’র সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম’র জিজ্ঞাসাবাদে অসংলগ্ন কথাবার্তায় ভুয়া সাংবাদিক বলে প্রমাণিত হলে গণপিটুনি দিয়ে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জহিরুল আনোয়ার জানান, চাঁদা দাবীর অভিযোগে ওদের স্থানীয়রা আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

গতরাতে জিজ্ঞাসাবাদ করে স্বাক্ষ্য প্রমাণাদির ভিত্তিতে ভুয়া সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার পর আজ মঙ্গলবার ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করার কথা তাদের।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।