রোববার থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট দিয়ে সম্প্রচার শুরু

0

বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক:

টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলাদেশের সব টিভি চ্যানেল বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে সেবা নেবে। রোববার থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট দিয়ে টিভি চ্যানেলগুলো সম্প্রচার শুরু করবে। এ ব্যাপারে প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হয়েছে।

এদিকে, আজ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১-এর উপক্ষেপণের এক বছর পূর্ণ হচ্ছে। ২০১৮ সালের ১১ মে রাত ২টা ১৪ মিনিটে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ যুক্তরাষ্ট্রের কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করে মহাকাশ প্রযুক্তি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স। খবর ডয়চে ভেলের।

আইসিটিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আরও জানান, ১৯ মে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান হবে। এ অনুষ্ঠানে স্যাটেলাইটটির বহুমুখী ব্যবহারের ওপর কয়েকটি প্রদর্শনী হবে। এছাড়া অনলাইন ব্যাংকিং লেনদেনে সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার, সব টিভি চ্যানেলকে স্যাটেলাইটের আওতায় আনা এবং এ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ভাসানচরে (যেখানে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরের কথা রয়েছে) ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করা হবে।

স্যাটেলাইট থেকে ক্যাবল টিভি দেখার সেবা ‘ডাইরেক্ট টু হোম’ বা ডিটিএইচ সেবাও নিশ্চিত করা হবে। বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেছেন, আসলে স্যাটেলাইট এক বছর হলেও আমরা বুঝে পেয়েছি নভেম্বরে। এর আগে এটি ফ্রান্সের থ্যালাস এলিনিয়া স্পেসের নিয়ন্ত্রণে ছিল। তারা গাজীপুরে গ্রাউন্ড স্টেশনে আমাদের ঢুকতেই দেয়নি।

আমরা পুরো নিয়ন্ত্রণ হাতে পাওয়ার পর বেশ কিছু চুক্তি ইতিমধ্যে করা হয়েছে। সময় টেলিভিশনের সম্পাদক আহমেদ জুবায়ের বলেন, আগে যেমন আমরা অফিসের ওপরে যে ডিশ আছে সেটা দিয়েই স্যাটেলাইটে আমাদের ডকুমেন্টগুলো পাঠিয়ে দিতাম, এখন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সি ব্যান্ডের না হওয়ার কারণে বেশ কিছু সমস্যা পোহাতে হবে। প্রথমত, আমাদের অফিসের উপরে যে আর্থ স্টেশন আছে সেটা দিয়ে আমরা চালাতে পারব না।

এর জন্য প্রতিটি স্টেশনকে এক কোটি টাকা করে খরচ করতে হবে। যদিও স্যাটেলাইট কর্তৃপক্ষ আমাদের আর্থ স্টেশন থেকে ক্যাবল দিয়ে সংযোগ নিয়েছে গাজীপুরের গ্রাউন্ড স্টেশনে। সেখান থেকে তারা স্যাটেলাইটে পাঠাচ্ছে।

এভাবেই সব টিভি চ্যানেল থেকে ডকুমেন্ট যাচ্ছে। এতে ক্যাবল কাটা যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। অবশ্য বিকল্প তিনটি লাইন করা হয়েছে, একটা কাটা গেলে যাতে অন্যটা দিয়ে কাজ চালানো যায়। জুবায়ের বলেন, টাকা-পয়সার বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়নি। তারা বলেছে, প্রথম ৩ মাস ফ্রি।

এরপর ঠিকমতো হলে আমাদের সঙ্গে চুক্তি হবে। আমরা প্রতিটি টিভি চ্যানেল প্রতি মাসে ২২ থেকে ২৪ হাজার ডলার দেই। এখন সেই টাকা আর বিদেশে পাঠাতে হবে না। এটা কিন্তু ভালো দিক। তবে অবশ্যই ঠিকভাবে কাজটা হওয়া দরকার। এখন দেখা যাক কী হয়।
বিসিএসসিএল চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ব্যাংকের এটিএম বুথ আর অনলাইনে অর্থ লেনদেন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর আওতায় আনতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

১৯ মে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের একটি বুথ এ স্যাটেলাইটের ব্যান্ডউইডথ ব্যবহার করে পরীক্ষামূলকভাবে চালানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে এর পরীক্ষামূলক কাজও শেষ হয়েছে। এরপর পর্যায়ক্রমে সব এটিএম বুথ কোনো ধরনের ব্রডব্যান্ড সংযোগ ছাড়াই এ স্যাটেলাইটের আওতায় আনা হবে। তিনি বলেন, এতে সাইবার অপরাধ কমে যাবে।

Spread the love
  • 1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।