মুক্তাগাছায় মসজিদে ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করলো ইমাম!

0

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলায় গত সোমবার মসজিদের ইমামের রিরুদ্ধে ঐ মসজিদে পড়ুয়া ১১ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ উঠলে ঘটনা জানাজানি হবার পর ধর্ষক ইমাম মানিক চানকে (৪৫) গ্রেফতার করে মুক্তাগাছা থানা পুলিশ।

মেয়েটির পরিবার ও এলাকাবাসী তথ্যসূতে, গত সোমবার মুক্তাগাছা পাড়াটঙ্গী কাঠগড়া এলাকার ১১ বছর বয়সী ওই শিশু শিক্ষার্থী মসজিদের ইমামের কাছে আরবি পড়ত। অন্যদিনের মতো সেদিনও বাড়ি থেকে মসজিদের আরবি পড়ার জন্য যায় সে, পড়ানোর এক পর্যায়ে ইমাম মানিক চান শিশুটিকে কিছু খাওয়াবে বলে প্রলোভন দেখায় এবং গায়ে হাত দেয়, পরে শিশুটি কিছু বোঝার আগেই জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

পরে সেদিন রাতে শিশুটির মা বাদী হয়ে মামলা করলে অভিযুক্ত মানিক চানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ইমাম মানিক চান মুক্তাগাছা উপজেলার পাড়াটঙ্গী কাঠগড়া মসজিদে ইমামতি করেন ঐ এলাকারই বাসিন্দা। পরে ঘটনার সততা প্রকাশ পাওয়ার পর মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত আসামীকে কারাগারে প্রেরণ করে।

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার মোর্শেদ জানান, অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই আমরা আসামি ইমাম মানিক চানকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করলে আসামী নিজ অপরাধের স্বীকারোক্তি দেয়। পরে বিজ্ঞ আদালত আসামি মানিক চানকে কারাগারে প্রেরণ করে।

এলাকাবাসী আসামী ইমাম মানিক চানের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করে প্রতিবাদ জানায় এবং আদালতের কাছে দাবী জানায়, যেন ধর্ষণকারী মানিক চানকে সর্বোচ্চ দেওয়া হয়, যাতে আর কোন নরপশু এমন কাজ করতে না পারে।

প্রসঙ্গত, শিশু যৌন হয়রানি একটি বড় সমস্যা আমাদের দেশের জন্য। পরিবারের বয়স্ক সদস্য, শিক্ষক, হুজুর এমনকি অপরিচিতদের দ্বারাও বহুভাবে শিশুরা শারীরিকভাবে হালকা বা গুরুতরভাবে যৌন হয়রানির শিকার হয়। অনেক সময় শিশুদের যৌনতা সম্বন্ধে ধারণা তৈরীর আগেই বয়স্ক কারো দ্বারা যৌন হয়রানির স্বীকার হলে তাকে বলা হয় পেডোফিলিয়া।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।