ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে নোবিপ্রবির শিক্ষার্থীকে হত্যাচেষ্টা!

0

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে সুধারাম মডেল থানায় মামলা করেছেন যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রী। মামলার পরই যৌন নিপীড়ক সদর উপজেলার লক্ষ্মীনারায়ণপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে হৃদয় হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সুধারাম মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করায় হৃদয় হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গত কয়েক মাস থেকে হৃদয়ের ছোট বোনকে বাসায় গিয়ে প্রাইভেট পড়াতো যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রী।

ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, ২ এপ্রিল প্রাইভেট পড়ানো শেষে বাসায় ফেরার পথে প্রচণ্ড ঝড়বৃষ্টি হয়। এ সময় হৃদয় মোটরসাইকেলযোগে বাসা থেকে শহরে আসার পথে ভিক্টিমকে দেখে দ্রুত পৌঁছে দেয়ার কথা বলে তার মোটরসাইকেলে উঠার প্রস্তাব দেয়। প্রথমে ভিক্টিম রাজি না হলেও পরে তুমুল ঝড়বৃষ্টির কথা বিবেচনা করে হৃদয়ের মোটরসাইকেলে ওঠেন।

নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এসে হঠাৎ গতি কমিয়ে ভিক্টিমকে মোটরসাইকেল থেকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেয় হৃদয়। ঝড়বৃষ্টির রাত হওয়ায় রাস্তায় কেউ ছিলো না। নির্জনতার সুযোগ নিয়ে হৃদয় ভিক্টিমকে জাপটে ধরে ধর্ষণ করার চেষ্টা চালায়। কিন্তু পাল্টা প্রতিরোধ করেন সেই শিক্ষার্থী। ধ্বস্তাধ্বস্তির এক পর্যায়ে হৃদয় গলা চেপে ধরলে ভিক্টিম জ্ঞান হারান।

মারা গেছে ভেবে হৃদয় দ্রুত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। এভাবেই পড়ে থাকেন ভিক্টিম। এভাবেই তাকে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। তাকে দ্রুত নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা এবং চট্টগ্রাম নেয়া হয়। চট্টগ্রামে চিকিৎসা শেষে তিনি অনেকটা স্বাভাবিক হন, সেদিনের ঘটনা পরিস্কার মনে করতে সক্ষম হন।

মঙ্গলবার ভিক্টিম নোয়াখালী সুধারাম থানায় বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে হৃদয়ের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা করেন। মামলাটি আমলে নিয়ে হৃদয়কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।