বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে ব্রিটিশদের: পাকিস্থানি তথ্যমন্ত্রী

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বাংলার দুর্ভিক্ষ ও জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের কারণে বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্থানের কাছে ব্রিটিশদের ক্ষমা চাইতে হবে বলে জানিয়েছেন পাকিস্থানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার টুইটারের এক পোস্টে এই কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড ও বাংলার দুর্ভিক্ষ সংঘটিত হওয়ার কারণে ব্রিটিশদের ক্ষমা চাইতে হবে। ব্রিটিশদের এই ট্রাজেডিগুলো ক্ষতচিহ্নের মতো। যেখানেই থাকুক হীরকখন্ড ‘কোহিনুর’ লাহোর জাদুঘরে ফিরে আসতে হবে।’

এদিকে পাকিস্থানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরীর ওই পোস্টে পাকিস্থানকেও বাংলাদেশর কাছে ক্ষমা চাইতে আহ্বান জনিয়েছেন ওমর সেলিম নামে পাকিস্থানের এক লেখক। তিনি লিখেছেন, ১৯৭১ সালে পাকিস্থানের সেনাবাহিনী এবং নেতারা বাংলাদেশে যে ট্রাজেডি ঘটিয়েছে তার জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত।

জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড (অমৃতসর হত্যাকাণ্ড) ভারতীয় উপমহাদেশের ইতিহাসে অন্যতম কুখ্যাত গণহত্যা। ১৯১৯ সালের ১৩ এপ্রিল অবিভক্ত ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের অমৃতসর শহরে ইংরেজ সেনানায়ক ব্রিগেডিয়ার রেগিনাল্ড ডায়ারের নির্দেশে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। এই শহরের জালিয়ানওয়ালাবাগ নামক একটি বদ্ধ উদ্যানে সমবেত নিরস্ত্র জনগণের উপর গুলিবর্ষণ করা হয়েছিল।

চীনা মুসলিমদের নির্যাতনের ব্যাপারে তেমন কিছু জানি না: ইমরান

চীন সরকার সে দেশের সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ২০ লাখেরও বেশি মানুষকে সংশোধনাগারের নামে এক ধরনের বন্দীশিবিরে আটকে রেখেছে বহুদিন ধরে। দেশটি মুসলিমদের ওপর গত কয়েক বছর ধরে নানা অত্যাচার করছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও পশ্চিমা অনেক দেশ অভিযোগ তুলেছে। তবে এ ব্যাপারে পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, এ ব্যাপারে তিনি বেশি কিছু জানেন না।

ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী। গত বুধবার সাক্ষাৎকারটি প্রকাশ করেছে ফিন্যান্সিয়াল টাইমস। সেই সাক্ষাৎকারে ইমরান খান বলেন, সত্যি কথা আমি ওই সম্পর্কে তেমন কিছুই জানি।

বিশ্বে মুসলিম সম্প্রদায় অনেক খারাপ সময়ের মধ্যে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন ইমরান খান। কিন্তু এ সময় তিনি চীনে উইঘুর মুসলিমদের ওপর যে নির্যাতন চালানো হচ্ছে বিষয়টি এড়িয়ে যান।

সাক্ষাৎকারে ইমরান খান আরো বলেন, ব্যাপারটি সম্পর্কে আমার যথেষ্ট জানা থাকলে আমি এ ব্যাপারে কথা বলতাম। এছাড়া চীনে মুসলিমদের ওপর যে নির্যাতন চালানো হচ্ছে সে বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমে বেশি কোন খবর নেই বলে উল্লেখ করেন তিনি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।