তুরস্ক-রাশিয়া যৌথভাবে তৈরি করবে কেএ-৩২ হেলিকপ্টার

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

তুরস্কের ঘনিষ্ঠ মিত্র রাশিয়া দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও জোরদার করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে রাশিয়া যৌথভাবে তুরস্কের সঙ্গে হেলিকপ্টার তৈরির কথা জানিয়েছে। দেশটির হেলিকপ্টার নির্মাতা সংস্থার প্রধান ডিজাইন ও নির্মাতা কোম্পানি এ কথা জানিয়েছে। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম আনাদলুর এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়।

সংবাদ সংস্থা আনাদলু জানায়, সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের মধ্যে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় মস্কোতে। এ সময় রাশিয়ার হেলিকপ্টার নির্মাতা সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আন্দ্রে বগিনস্কাই জানান, তিনি গত সপ্তাহে তুরস্কে গিয়েছিলেন, সে সময় সম্ভাব্য ক্রেতাদের সঙ্গেও কথা হয়েছে তার।

বগিনস্কাইয়ের তথ্যমতে, গত বছর রাশিয়া ও তুরস্কের সঙ্গে কেএ-৩২ অগ্নিনির্বাপক হেলিকপ্টার তৈরির চুক্তি হয়েছে। তিনি এর ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, আমাদের পূর্ব অভিজ্ঞতা থেকে দেখেছি, আমরা এটি অন্য দেশেও বিক্রি করতে পারব। তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার উদাহরণ দিয়ে বলেন, দেশটির সীমান্তের অঞ্চল তুর্কি প্রজাতন্ত্রের চেয়ে অনেক ছোট। কিন্তু সেখানে প্রায় ৫০টি হেলিকপ্টার নজরদারির কাজে নিয়োজিত রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ৩টি কপ্টার রাশিয়ান সরঞ্জামগুলোর ক্ষমতা প্রদর্শন করবে। বগিনস্কাই তুর্কি বাজারের সম্ভাব্য এবং সহযোগিতায় আরও এলাকা খোঁজারও প্রস্তাব দেন। কেএ-৩২ চুক্তিটি সমর্থনের জন্য রাশিয়ান রফতানি কেন্দ্রকে ধন্যবাদ জানাই। এ কপ্টারের মেশিনগুলো ক্রেডিট স্কিমের মাধ্যমে সরবরাহ করা হচ্ছে এবং অবশ্যই, আমরা তুর্কি বাজারকে সবচেয়ে আশাপ্রদ হিসেবে দেখছি। রফতানি ও সহযোগিতায় রাশিয়া বিমান শিল্পে নজর দিয়েছে। রাশিয়া প্রস্তুত রয়েছে ক্রেতাদের বাকিতে এবং তাদের সাহায্য করতে।

বগিনস্কাই আরও বলেন, এর আগে তুরস্কের অভিজ্ঞতা রয়েছে ইতালির সঙ্গে হেলিকপ্টার উৎপাদনে এবং একই অভিজ্ঞতা রাশিয়ার সঙ্গে উপভোগ করবে। আমরা জানি, ইতালির সঙ্গে তুরস্ক সামরিক হেলিকপ্টার সফলভাবে তৈরি করেছে। ইতালি তাদের সহযোগিতা করছে। আমরা বেসামরিকভাবে এর সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি। আমরা বিভিন্ন ধরনের হেলিকপ্টার তৈরি করব এবং আমরা আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখব।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।