বাংলাদেশে ঢুকে পড়ার ভয়ে আকাশে দিকভ্রান্ত মমতার হেলিকপ্টার!

0

কলকাতা প্রতিনিধি:

হঠাৎ করে হেলিকপ্টার বিভ্রাটে পড়লেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বুধবার এক নির্বাচনী প্রচার সভা থেকে অন্য সভায় যাওয়ার সময় মাঝ আকাশে পথ হারিয়ে ফেলে তার হেলিকপ্টার। দিকভ্রান্ত হয়ে এমন অবস্থায় পৌঁছে যায়, পাইলট ঠিক করতে পারছিলেন না কোনদিকে যাবেন। জায়গাটির একপাশে বাংলাদেশ ও অন্যপাশে নেপাল সীমান্ত হওয়ায় ভয় পেয়েছিলেন তিনি। এতে প্রায় ৩৩ মিনিট আকাশে চক্কর কাটে কপ্টারটি। ভারতীয় শীর্ষ দৈনিক পত্রিকাগুলোর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, চোপড়ার পশ্চিমদিকে নেপালের আকাশসীমা এবং পূর্বদিকে বাংলাদেশের আকাশসীমা। তাই রাস্তা হারিয়ে ভিন দেশের আকাশসীমানায় মুখ্যমন্ত্রীর কপ্টারের ঢুকে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ছিল। সেক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার যথেষ্ট আশঙ্কা ছিল। তাই সতর্কভাবে কপ্টারটি চালাতে গিয়ে উল্টো পথ হারিয়ে ফেলে চালক।

প্রসঙ্গত, কোনো আকাশযান অপর দেশের সীমায় ঢুকে পড়লে সংশ্লিষ্ট দেশটি নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে শত্রুপক্ষ ভেবে ধ্বংসও করে দিতে পারে। অথবা অযাচিত কোনো ঘটনাও ঘটতে পারে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, আসাম রাজ্যের লক্ষ্মীপুর জেলার চোপড়া থানায় আয়োজিত এক সভার উদ্দেশে যাচ্ছিল মমতা ব্যানার্জির হেলিকপ্টার। সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, মমতার হেলিকপ্টার মাঝ আকাশে রাস্তা ভুলে সেটি ঢুকে পড়ে বিহারে।

আকাশ পথে সেই স্থানে যেতে মাত্র ২২ মিনিট সময় লাগলেও ওই ঘটনার পর সময় লেগেছে ৫৫ মিনিট! কী কারণে পাইলট এমন ঘটনা ঘটিয়েছে, তা এখনো জানা যায়নি। তবে পুরো ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে ১৭তম লোকসভা নির্বাচন। ৭ দফার প্রথম দফার ভোট হবে এদিন। মমতার তৃণমূল কংগ্রেস জোর প্রচারণা চালাচ্ছে। বুধবার তার প্রথম সভাটি ছিল চোপড়া থানায়। আর সেখানে যাওয়ার পথেই এমন বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে।

শিলিগুড়ির আড়াইমাইলে হোটেলে ছিলেন মমতা। বুধবার সকালে সেই হোটেলের সামনে থাকা হেলিপ্যাড থেকে হেলিকপ্টারটি ওড়ে। চোপড়া থানার দাসপাড়ার দিকে যাচ্ছিল সেটি। কিন্তু আসতে অনেকটাই দেরি হলে অনেকেই চিন্তিত হয়ে পড়েন।

Spread the love
  • 508
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    508
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।