আর আমদানি নয়, গাড়ি বানাবো নিজের দেশেই: শিল্পমন্ত্রী

0

অর্থনীতি ডেস্ক:

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, আমাদের বাজার আমাদেরই ধরে রাখতে হবে। আমদানি না করে নিজেরাই গাড়ি তৈরি করতে হবে। আমরা অন্যের ওপর নির্ভরশীল হয়ে থাকতে চাই না। নিজেরা নিজেদের গাড়ি তৈরি করবো। অনেক সেনাপতি তৈরি করেছি। এবার শিল্পপতি বানাবো।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় সেমস গ্লোবাল আয়োজিত ১৪তম ঢাকা মোটর, ৫ম ঢাকা বাইক, ৪র্থ ঢাকা অটো পার্টস ও ৩য় ঢাকা কমার্শিয়াল অটোমোটিভ শো’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় মন্ত্রী বলেন, দৃঢ় প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ শিল্প উন্নয়নের যে মাইলফলকে পৌঁছেছে, সারাবিশ্বে অনুকরণের রোল মডেল হয়ে দাঁড়িয়েছে। শিল্পক্ষেত্রে আমরা অনেক এগিয়ে গেছি। মূলত তা বঙ্গবন্ধুর অবদান। তিনি যদি ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) প্রতিষ্ঠা না করতেন, তাহলে আজ দেশ শিল্পে এগিয়ে যেতে পারতো না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুকে খুব কাছে থেকে দেখেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন মোতাবেক এ দেশ গড়ছেন তিনি।

শিল্পমন্ত্রী এও বলেন, ঢাকার ফিটনেসবিহীন গাড়ি নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন, যানজটের জন্য এসব গাড়িকে দায়ী করেন। কিন্তু যদি আমরা ফিটনেসবিহীন গাড়ি ধরতে অভিযান চালাই, তাহলে এতো গাড়ি ডাম্পিং করার জায়গা নেই।

সেমস গ্লোবালের প্রেসিডেন্ট মেহেরুন এন ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আরইএল মোটরস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিয়াদ হাসনাইন, র‍্যাংকন মোটর বাইকস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাওন হাকিম, এনার্জি প্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেডের পরিচালক এনামুল হক চৌধুরী ও কর্ণফুলী গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক আনিসুদ্দৌলা প্রমুখ।

এর আগে গত ৩ মার্চ বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে শুরু হওয়া ইন্দো-বাংলা অটোমেটিভ শোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন কিছু ব্র্যান্ডের টু-হুইলার (মোটরবাইক) সংযোজন এবং উৎপাদন করলেও ৪ চাকার গাড়ি তৈরি করা যাচ্ছে না নীতিমালার অভাবে। নীতিমালা হয়ে গেলে তার ধারাবাহিকতায় আইনও প্রণয়ন করা হবে।

বাংলাদেশে গাড়ি তৈরি ক্ষেত্রে সরকার যৌথ বিনিয়োগকে উৎসাহ দেবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যেসব দেশে বাংলাদেশ শুল্কমুক্ত সুবিধা পায় সেখানে গাড়ি রপ্তানির সুযোগ প্রশস্ত হবে সেক্ষেত্রে। গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিগুলো যাতে বাংলাদেশে কারখানা খুলতে উৎসাহিত হয়, সেজন্য সরকার ভর্তুকি দিতে পারে বলেও মনে করেন টিপু মুনশি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার ‘খুবই ব্যবসাবান্ধব’। বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে যা যা দরকার তা করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে এ বিষয়ে তিনি খুবই আশাবাদী। আমরা যদি আমাদের এখানে গাড়ির যন্ত্রাংশ বানাতে পারি, তাহলে আমরা এখানে গাড়িও বানাতে পারব। টায়ার তৈরির কোম্পানিগুলোকেও বাংলাদেশে কারখানা খোলার আহ্বান জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

Spread the love
  • 6.1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6.1K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।