সিলেটে কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত

0

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা:

সিলেটের মদন মোহন কলেজ ক্যাম্পাসে ঢুকে নগরীর ১৩ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রকি দেবকে কুপিয়েছে দুর্বৃৃত্তরা। এতে রকিসহ আরও ৬ জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুর পৌনে ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, ১০/১৫ জন “দুর্বৃত্ত” রাম দা হাতে মদন মোহন কলেজের প্রধান ফটক দিয়ে ঢুকে ছাত্রলীগের নেতা রকিকে ধাওয়া করে কুপিয়ে জখম করেন। এ সময় ভয়ে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা এদিক ওদিক পালাতে গিয়ে ৬ জন আহত হয়েছেন। হামলাকারীরা এম সাইফুর রহমান হলসহ বিভিন্ন অনুষদে ঢুকে হামলা চালায়। পরে কলেজের পেছনের গেট দিয়ে তারা সটকে পড়ে।

এদিকে হামলায় আহত রকিকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম মিয়া বলেন, হামলার খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। তবে হামলাকারীরা পুলিশ যাওয়ার আগেই ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েছে।

রূপগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতার পায়ের রগ কেটে হত্যা, বিএনপি-জামায়াতের ৪ কর্মী আটক

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দুর্বৃত্তরা সোহেল মিয়া (২৭) নামে এক ছাত্রলীগ নেতার পায়ের রগ কেটে হত্যা করেছে বলে জানা গেছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সকালে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের টাওড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সোহেল টাওড়া এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে। তিনি ভোলাব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

ভোলাব পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শহিদুল আলম জানান, বুধবার (১৩ মার্চ) রাত আনুমানিক ১০টার দিকে কিছু দুর্বৃত্ত ছাত্রলীগ নেতা সোহেলকে তুলে নিয়ে তার দুই পায়ের রগ কেটে দেয় এবং পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশ থেঁতলে দিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়।

পরে বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন মুমূর্ষ অবস্থায় টাওড়া এলাকায় থেকে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু। এ ঘটনায় সন্দেহজনকভাবে বিএনপি-জামায়াতের ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

নিহত সোহেলের বাবা নুরুল ইসলাম বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে আমার ছেলেকে বিএনপি-জামায়াতের কয়েকজন কর্মী রগ কেটে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।