‘সব পুরুষের চোখ নারীর স্তনের আকার বিচার করে?’- স্বস্তিকার প্রশ্ন

0

বিনোদন ডেস্ক:

ভারতীয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হঠাৎ উপ্তপ্ত অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের একটা পোস্ট নিয়ে। সে পোস্টের প্রধান বিষয় হল, নারীত্বের নামে শরীর সচেতনতার অভ্যাস বন্ধ হোক। স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় নারী দিবসে প্রশ্ন তুলে বলেছেন, দিন যতই স্থির করা থাক, পুরুষতন্ত্রের চোখে নারীকে শরীর হিসেবে দেখার দৃষ্টিভঙ্গিটা কি আদৌ বদলায়?

শুক্রবারের ফেসবুক পোস্টে স্বস্তিকা জানিয়েছেন- সম্প্রতি তিনি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি ছবি পোস্ট করেন। আর সেই ছবি দেখে তাকে প্রশ্ন করা হয় কেন তার স্তনের আকার সুগঠিত নয়, কেন তার স্তনগুলি শিথিল হয়ে গিয়েছে?

স্বস্তিকা এই প্রসঙ্গেই লিখেছেন, একজন নারীকে দেখার সময়ে সব পুরুষের চোখে কি প্রথম এটাই বিবেচ্য যে তার স্তনের আকার কেমন? এটাই কি তাদের মন্তব্য করার মতো একমাত্র বিষয়?

এ ধরনের অশালীন মন্তব্যকারীদের মুখ বন্ধ করে দিতে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, ‘অভিনেত্রী হওয়ার পাশাপাশি আমি এক জন মা। আর বেশ কিছু বছর সন্তানকে স্তন্যপান করিয়েছি। পাম্প ব্যবহার করিনি। সুযোগ পেলে আবারও স্তন্যপান করাব আমি। আর সে জন্য অমি এক জন গর্বিত মা। আপনার যদি আমার স্তন নিয়ে কিছু বলার থাকে, যান, কয়েক বছর ধরে কোনও শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে আসুন আগে।

তিনি আরও লেখেন, আমি যখন নায়িকা হিসেবে অভিনয় করি, তখন আমার দায় থাকে টানটান অন্তর্বাস পরে বুকের গঠন সুডৌল রাখার। কারণ পৃথিবী আমায় সেভাবেই দেখতে চায়। কিন্তু সেটা যখন আমি করছি না, তখন আমার কিচ্ছু এসে যায় না। হ্যাঁ, আমার স্তনজোড়া শিথিল, আর আমি ওদের ওভাবেই ভালবাসি।

এর পরে আরও একটি পোস্ট শেয়ার করেন অভিনেত্রী। সেখানে তিনি লেখেন, ‘আজ বিশ্ব নারী দিবস। কিছু ক্ষণ পর থেকেই চতুর্দিকে নানা সার্কাস শুরু হয়ে যাবে। এখনও এটাই আশা করা হয় যে এক জন মেয়েকে সব সময়ে সব দিক থেকে ছবির মতো সুন্দর এবং নিখুঁত হতে হবে। তার স্তন, কোমর, নিতম্ব, ঠোঁটের চুলচেরা বিচার করা হবে। যদি সেগুলো যথেষ্ট ‘সুন্দর’ না হয়, তা হলে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সেগুলো ঠিক করাতে হবে। আর তা না করালে সেই মহিলাকে আবার ট্রলের শিকার হতে হবে। কী ব্যঙ্গ!

Spread the love
  • 88
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    88
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।