ফেনীতে পরকীয়ার জেরে শাশুড়ির আত্মহত্যা, জামাতা আটক

0

ফেনী সংবাদদাতা:

ফেনীতে পরকীয়া প্রেমের জের ধরে লায়লা বেগম (৪৫) নামে এক নারী ৫ তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় সদ্য প্রবাস ফেরত জামাতাকে আটক করেছে ফেনী মডেল থানা পুলিশ। রোববার (৩ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের পাঠান বাড়ি সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারী পূর্ব ছাগলনাইয়া হাসনাবাদ গ্রামের কামাল উদ্দিনের স্ত্রী। মা-মেয়ে ফেনী শহরের পাঠান বাড়ি সড়কের একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন।

জানা যায়, ওই নারীর সাথে জামাতার একটি গোপন সম্পর্ক গড়ে ওঠে প্রবাস যাত্রার আগেই। অল্প বয়সে বিধবা শ্বাশুড়ি একাকীত্বের সুযোগে জামাতার সাথে ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়ে মেয়ের অলক্ষ্যে। প্রবাসে গিয়েও সেই সম্পর্ক বজায় থাকে। ভিডিও কলের মাধ্যমেও শ্বাশুড়ি জামাতার যৌন সম্পর্ক চলতে থাকে। নিয়মিত নগ্ন ভিডিও আদান প্রদান করতেন দু’জনই।

অত্যন্ত কৌশলে এই সম্পর্ক বজায় রাখেন তারা। কিন্তু খুব বেশিদিন এই গোপনীয়তা রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। এক পর্যায়ে মায়ের মোবাইল ফোনে স্বামীর নগ্ন ভিডিও খুঁজে পায় মেয়ে। আর এ নিয়ে শুরু হয় পারিবারিক সমস্যা। খবর চলে যায় জামাতার কানে। সবদিক সামলাতে ছুটে আসেন তিনি। তারপরই ঘটে আত্মহত্যার ঘটনা।

ফেনী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) রাশেদ হক জানান, গত ৩ দিন আগে প্রবাস থেকে মেয়ের জামাতা দেশে ফিরে আসলে এই পরকীয়া প্রেমের ঘটনার জেরে পারিবারিক কলহ গড়ে ওঠে জোরেসোরে।

এর জের ধরে রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লায়লা বেগম ৫ তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করে বলে প্রবাসী জামাতা পুলিশকে জানান। তাৎক্ষণিক শাশুড়িকে ওই জামাতা ফেনী সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মেয়ের জামাতা বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

ফেনী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাশেদ হক নারীর মরদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে আরো বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।