যে যোগব্যায়াগুলো আপনার উচ্চতা বাড়াবে

0

লাইফ স্টাইল ডেস্ক:

আমরা সবাই-ই ফিট-স্লিম আর লম্বা হতে চাই। কিন্তু এই সৌভাগ্য আসলে খুব অল্প মানুষই পেয়ে থাকেন যার উচ্চতা ও ফিগার নিজের পছন্দমতো। আমরা স্লিম বা মোটা হয়ত হতে পারি, সঠিক ডায়েট আর ব্যায়ামের মাধ্যমে। কিন্তু উচ্চতা?

যোগ-বিশেষজ্ঞ ডা. দিব্যসুন্দর দাস (যোগসন্দর্শন বইয়ের লেখক) বলেন, মানুষের উচ্চতা একটা বয়সের পরে আর বাড়ে না। আর জেনেটিক, চাহিদা অনুযায়ী পুষ্টি ও শারীরিক সুস্থতার ওপর নির্ভর করে আমাদের হাইট কতটা হবে। তবে কিছু ইয়োগা (যোগব্যায়াম) রয়েছে যেগুলো নিয়মিত করলে আমাদের উচ্চতা বাড়তে পারে।

উচ্চতা বাড়ে এমন কিছু যোগব্যায়াম কীভাবে করতে হবে জেনে নিন:

ধনুরাসন

আসন অবস্থায় দেহটা অনেকটা ধনুকের মতো দেখায় বলে আসনটির নাম ধনুরাসন। এটি করতে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। পা দু’টো হাঁটুর কাছ থেকে ভেঙে পায়ের পাতা যতদূর সম্ভব পিঠের ওপর নিয়ে আসুন। এবার দুই হাত পেছন দিকে ঘুরিয়ে নিয়ে দু’হাত দিয়ে দু’পায়ের ঠিক গোড়ালির উপরে শক্ত করে ধরুন এবং পা দু’টো যতদূর সম্ভব মাথার দিকে টেনে আনুন।

বুক, হাঁটু ও উরু মেঝে থেকে উঠে আসবে। শুধু পেট ও তলপেট মেঝেতে থাকবে। শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকবে এবং ২০ থেকে ৩০ সেকেন্ড এই অবস্থায় থাকুন। এরপর হাত-পা আলগা করে আস্তে আস্তে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। একটু বিশ্রাম নিয়ে আসনটি ২/৩ বার করুন।

হস্তপদাসন

প্রথমে মেরুদন্ড সোজা রেখে দু’পায়ের মধ্যে ৪/৫ আঙুল পরিমাণ ফাঁক করে দাঁড়ান। এবার হাত দু’টি মাথার ওপরে সোজা করে তুলুন। হাত ওপরে তোলার সময় বুকভরে দম নিন।

এবার দম ছাড়তে ছাড়তে ধীরে ধীরে শরীরের ওপরের অংশ সামনের দিকে নামাতে থাকুন। মাথা নুইয়ে মুখ হাঁটুর কাছে নিয়ে এসে কপাল হাঁটুর সঙ্গে লাগিয়ে রাখুন। এবার দুহাত দিয়ে দুপায়ের গোড়ালির একটু ওপরে ধরুন অথবা দুই হাতের তালু মাটিতে রাখুন।

খেয়াল রাখুন যাতে হাঁটু ভেঙে না যায়। হাঁটু সোজা করে রাখতে হবে এবং পেট ও বুক উরুর সঙ্গে লেগে থাকবে। শ্বাস-প্রশ্বাস থাকবে স্বাভাবিক। এভাবে কয়েক সেকেন্ড থাকুন (নিয়মিত চর্চা করলে ১০ থেকে ২০ সেকেন্ড এভাবে থাকতে পারবেন)।

তারপর ধীরে ধীরে শরীরকে আগের অবস্থায় নিয়ে আসুন। এভাবে পাঁচবার করতে পারেন। এ আসনটি বসেও করতে পারেন।

শশঙ্গাসন

বসে হাতের বুড়ো আঙুল বাইরের দিকে রেখে দু’ হাত দিয়ে দু’ পায়ের গোড়ালি ধরুন। সামনের দিকে ঝুঁকে মাথার তালু হাঁটুর সামনে মাটিতে রাখুন। কপাল হাঁটুতে ঠেকে থাকবে। ডিগবাজি খাওয়ার ভঙ্গিতে নিতম্ব ওপর দিকে তুলুন (কিন্তু ডিগবাজি খাবেন না)।

এ অবস্থায় স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাসে মনে মনে দশ থেকে ক্রমশ বাড়িয়ে ৩০ গুনুন এবং বিশ্রাম নিন। তিন বার করুন। যোগব্যায়াম করতে গিয়ে কোনো অসুস্থতা বা অস্বস্তিবোধ করলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে নিন।

Spread the love
  • 44
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    44
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।