আমাকে কথা দাও, কেউ পার্টি ছেড়ে যেও না প্লিজ: এরশাদ

0

সময় এখন ডেস্ক:

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, আজ বলতে এসেছি, আমাকে কেউ দমিয়ে রাখতে পারবে না। আমি এগিয়ে যাব। আমার বয়স হয়েছে চিকিৎসা করতে দিবে না। বাইরে যেতে দিবে না। মৃত্যুকে ভয় করি না। তবুও আমি মনে করি শতভাগ ফিট আছি। শক্ত হয়ে আবার মাথা তুলে দাঁড়াবো।

মাত্র কয়েক মিনিটের জন্য বনানী এরশাদের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে গাড়িতে বসে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে কর্মীদের উদ্দেশ্যে এমন কথা বলেছেন তিনি।

এরশাদ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের কোনো ভয় নেই। জাপা তোমাদের মাঝে বেঁচে থাকবে। জাপা চিরদিন নির্বাচন করেছে, এবারও করবে। পুরান মহাসচিবকে ভালোবাসতাম। নতুন মহাসচিবকে তোমরা ভালোবেসো। সে নতুন, তাকে সাহায্য করো।

এরশাদ বলেন, বেঁচে আছি, বেচে থাকবো। ২৭ বছর ধরে রাস্তায় রস্তায় ঘুরেছি, পার্টি ছাড়ি নাই। সব নির্ভর করে তোমাদের উপর। কেউ পার্টি ছেড়ে যেও না প্লিজ, আমাকে প্রতিশ্রুতি দাও।

বাসায় একা ভয় পান এরশাদ, তাই নার্সদের যত্নে আছেন: রাঙ্গা

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এই বৃদ্ধ বয়সে বাসায় একা থাকেন। হঠাৎ যদি রাতে ঘুম ভেঙে যায়, তিনি অস্থির বোধ করেন। কাছের লোকজন নাই বলে দেখাশোনার করাটাও একটা সমস্যা। বিশাল খালি বাসায় তিনি ভয় পান বলে নার্সসহ চিকিৎসা সুবিধা পেতে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) থাকছেন বলে জানিয়েছেন তার দলের নবনিযুক্ত মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা।

মঙ্গলবার বনানীতে পার্টির চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

নতুন মহাসচিব রাঙ্গা বলেন, ‘স্যারের (এরশাদ) বাসায় নিকটাত্মীয় কিংবা স্বজন কেউই নেই। সেখানে এত বড় বাসায় তিনি একা একা থাকতে ভয় পাচ্ছেন। এজন্য শরীরে একটু অসুবিধাবোধ করলে অ্যাম্বুলেন্স ডেকে সিএমএইচে চলে যাচ্ছেন। ওখানে নার্স আছেন, ডাক্তার আছেন, স্যারের দেখাশোনার সমস্যা হবে না। এটিকে ভিন্নভাবে নেয়ার কিছু নেই।’

Spread the love
  • 150
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    150
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।