ঐশী গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে মিস ওয়ার্ল্ডের সেরা ২০-এ

0

বিনোদন ডেস্ক:

বাংলাদেশের মেয়ে ঐশী ৬৮তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় গ্রুপ ৬-এর ‘হেড টু হেড’ চ্যালেঞ্জে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেরা ২০-এ জায়গা করে নিয়েছেন। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ- ২০১৮’র চ্যাম্পিয়ন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীকে নিয়ে চলছে মাতামাতি। এর আগে, ৩০ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের দেয়া উত্তরের ওপর ভোট গ্রহণ। এরপর অন্যান্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে গ্রুপ ৬ এর চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ঘোষণা করা হয় ঐশীর নাম। আর এই বিভাগে উত্তীর্ণ হয়ে ঐশী এখন সেরা ২০-এ।

চীনের সানাইয়া শহরে আগামী ৮ ডিসেম্বর বসবে বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে আসর। সেদিন জানা যাবে, এবার আসরে কে হচ্ছেন বিশ্ব সুন্দরী। এর আগে বিশ্বের অন্যান্য দেশের প্রতিযোগীদের সঙ্গে বিভিন্ন বিভাগে অংশ নিচ্ছেন ঐশী। সব কটি ধাপ সাফল্যের সঙ্গে পার হলে হয়তো গ্র্যান্ড ফিনালেতেও দেখা যেতে পারে বাংলাদেশের ঐশীকে।

বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে ১০ নভেম্বর চীনের উদ্দেশে বাংলাদেশ ছেড়েছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ ঐশী। এখন তিনি চীনের সানাইয়া শহরে আছেন। বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসরে ১৫০টি দেশের প্রতিযোগীর সঙ্গে তিনি অংশ নিয়েছেন।

পিরোজপুর জেলার মাটিভাঙ্গা এলাকার মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশী। এইচএসসি পাস করেছেন মাথাভাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ থেকে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে এসেছিলেন ঢাকায়। ভর্তি কোচিং এবং আইইএলটিএস কোচিং করার সময়ই দেখেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার বিজ্ঞাপণ। নাম লেখান প্রতিযোগিতায়। নানা ধাপ পেরিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বরের গ্র্যান্ড ফিনালেতে চ্যাম্পিয়ন হন তিনি।

বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় গত আসরে সেরার মুকুট অর্জন করেন ভারতের মানুষী ছিল্লার। এবার তার দেশ থেকে লড়ছেন তামিলনাড়ুর ২০ বছর বয়সী অনুকৃতি ভাস। তিনি ‘মিস ইন্ডিয়া ২০১৮’ নির্বাচিত হন। মডেল হওয়ার ইচ্ছা থেকেই অনুকৃতি এফবিবি কালারস ফেমিনা মিস তামিলনাড়ু প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি। সেখানে সেরা হয়েই মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় শামিল হন।

ডিসেম্বরর ৮ তারিখ ৬৮তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালেতে থাকবে চোখ ধাঁধানো সৌন্দর্য, চমৎকার ফ্যাশন ও বিশ্বসেরা পারফরম্যান্সের সম্মিলন। যেখানে নতুন নির্বাচিত মিস ওয়ার্ল্ডের মাথায় মুকুট পরিয়ে দেবেন বর্তমান বিশ্বসুন্দরী ভারতের মানুসি চিল্লার।

উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে প্রথম মিস বাংলাদেশ আনিকা তাহের অংশ নেন বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায়। এরপর ইয়াসমিন বিলকিস সাথী (১৯৯৫), রেহনুমা দিলরুবা চিত্রা (১৯৯৬), শায়লা সিমি (১৯৯৮), তানিয়া রহমান তন্বী (১৯৯৯), সোনিয়া গাজী (২০০০) ও তাবাসসুম ফেরদৌস শাওন (২০০১) মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। মাঝে ১৫ বছর বিরতি দিয়ে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ থেকে বিশ্বসুন্দরীর মঞ্চে যান জেসিয়া ইসলাম এবং তিনি সেরা ৪০ এ উঠে আসেন।

Spread the love
  • 40
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    40
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।