পুতুল ইউনেস্কোর আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত

0

সময় এখন ডেস্ক:

ইউনেস্কোর আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশের অটিজম বিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল।

আজ রবিবার প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ পুতুল আগামী দুই বছর জুরি বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন।

উন্নত ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের করে প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখা ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে স্বীকৃতি স্বরুপ ইউনেস্কো ‘আমির জাবের আল-আহমদ আল-সাবাহ’ পুরস্কার দিয়ে থাকে। কুয়েত সরকারের সাহায্যে পরিচালিত এই পুরস্কারের অর্থমূল্য ২০ হাজার মার্কিন ডলার, যা একজন ব্যক্তি এবং একটি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হয়।

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিয়ে কাজ করেন এমন ব্যক্তিরা এই জুরি বোর্ডের দায়িত্ব পালন করে থাকেন। সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম আক্রান্ত ব্যক্তিদের কল্যাণে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছেন।

জুরি বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত হবার পর সায়মা ওয়াজেদ পুতুল ইউনেস্কোর ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল গেটাচু ইংগিডা’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বাংলাদেশে শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিদের জীবনমান উন্নয়নে সহযোগিতার বিষয়ে তারা আলোচনা করেন।

এক নজরে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল

পিতা বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. ওয়াজেদ মিয়া ও মাতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল নিজ আলোতেই উদ্ভাসিত। সারাবিশ্বেই তিনি অটিস্টিক শিশুদের নিয়ে তাদের অধিকার ইত্যাদি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানসিক স্বাস্থ্যের উপর বিশেষজ্ঞ প্যানেলের একজন সদস্য। তিনি একজন সনদপ্রাপ্ত মনোবিজ্ঞানী।

সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের স্বামীর নাম খন্দকার মাশরুর হোসেন। তার ৩ কন্যা এবং ১ ছেলে।

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ব্যারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৭ সালে মনোবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি, ২০০২ সালে ক্লিনিক্যাল সাইকোলজির ওপর মাস্টার্স ডিগ্রি এবং ২০০৪ সালে স্কুল সাইকোলজির ওপর বিশেষজ্ঞ ডিগ্রি লাভ করেন। ব্যারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের সময় তিনি বাংলাদেশের নারীদের উন্নয়নের ওপর গবেষণা করেন। এ বিষয়ে তার গবেষণাকর্ম ফ্লোরিডার একাডেমি অব সায়েন্স কর্তৃক শ্রেষ্ঠ সায়েন্টিফিক উপস্থাপনা হিসেবে স্বীকৃত হয়।

সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল ২০০৮ সাল থেকে শিশুদের অটিজম এবং স্নায়বিক জটিলতাসংক্রান্ত বিষয়ের ওপর কাজ শুরু করেন। অল্প সময়ের মধ্যেই তার কাজ বিশ্বজুড়ে প্রশংসা পেয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে পুতুলকে হু (WHO) অ্যাক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত করে। মনস্তত্ববিদ সায়মা যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান অটিজম স্পিকস-এর পরামর্শক হিসেবেও কাজ করেন। তিনি ২০১৩ সালের জুন থেকে মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা বিশেষজ্ঞ পরামর্শক প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হন।

Spread the love
  • 72.4K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    72.4K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।