‘শেখের বেটি ভোটে জিতলে আমিই বাঘা কাদেরের হাতে চুড়ি পিন্দামু’

0

বিশেষ সংবাদদাতা:

‘উনি যত বড় মুক্তিযোদ্ধা হন না কেন, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগের বিপক্ষে যেদিন তিনি রাজনীতির মাঠে নামছেন, সেদিন থনেই তারে মন থিকা বাদ দিছি। আবার ঘোষণাও দিছেন, শেখের বেটি ভোটে জিতলে নাকি চুড়ি পিনবেন! তারে চুড়ি আমি রবিউলই পিন্দামু। ওয়াদা করলাম।’ এভাবেই ক্ষোভের কথা জানান দিলেন চুড়ি বিক্রেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিউল শেখ।

প্রসঙ্গত, এ বছরের শুরুতে (২৫ জানুয়ারি) নাটোর শহরের কানাইখালী এলাকায় কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের এক সমাবেশে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছিলেন, ‘আওয়ামী লীগ আর ক্ষমতায় যেতে পারবে না। আর যদি কোনভাবে তারা জয়ী হয়, তাহলে আমি হাতে চুড়ি পরে রাস্তায় ঘুরে বেড়াবো।’

একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিউল শেখ এখন জীবনযুদ্ধে অনেকটাই ক্লান্ত, পরিশ্রান্ত। ফুটপাতে ফেরি করেন রঙিন ফিতা, রঙিন চুড়ি। কিন্তু নিজের জীবন আজও সেই সাদাকালো ফিতায় আটকে আছে। জেদের বশে নেননি মুক্তিযোদ্ধার সনদ। প্রতিবেদককে রবিউল শেখ বলেন, ‘দেশ স্বাধীন করছি, খান সেনাদের হাত থিকা মায়েরে মুক্ত করছি। পোলা হইয়া কেমনে এইজন্য কিছু চাই? শেখ সাবরে সালাম। তার বেটিরে সালাম। হাসিনা মা জননী মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যা করছেন, সেইটা আর কাউরে দিয়া হইত না। তারে ক্ষমতায় আবার আসতে হইব।’

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর নিবাসী এই একাত্তরের বীর সেনানীর কণ্ঠে ঝরে পড়ে ক্ষোভ বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর প্রতি। আওয়ামী লীগ ছেড়ে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ দল গঠন করার পর বাঘা কাদের ওরফে কাদের সিদ্দিকীর জনপ্রিয়তা যেমন নেমেছে, তেমনি সরকারের প্রতি বিশেষ করে শেখ হাসিনাকে লক্ষ্য করে তার অব্যহত সমালোচনার কারনেও স্থানীয় মানুষ তার ওপর বিরক্ত। রবিউল শেখ এর বদ্ধমূল ধারণা, আওয়ামী লীগের যে জনপ্রিয়তা এবং অব্যহত উন্নয়ন, তাতে কাদের সিদ্দিকী যে আর এ জীবনে ক্ষমতার স্বাদ পাবেন না, সেসব জেনে হতাশা থেকে এসব করে বেড়াচ্ছেন।

রবিউল শেখ তার আলাপচারিতায় জানান, একজন মুক্তিযোদ্ধা কীভাবে রঙ বদলাতে পারে, সেটা কাদের সিদ্দিকীকে না দেখলে বিশ্বাস করা কঠিন। ড. কামাল হোসেনকে ‘বেঈমান’ উল্লেখ করে এই মুক্তিযোদ্ধা বলেন, ‘বাঘা বলে সে নাকি বিএনপিতে যোগ দেয় নাই, নাফরমান কামালের ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিছে! আমরা কি দুধের বাচ্চা? এইসব বুঝি না? বিএনপি আর ঐক্যফ্রন্ট কি আলাদা কিছু? সব বদমাশ তো একজায়গায় গিয়া জোট করছে। সেইটার যত খরচাপাতি দেয় বিএনপি। ওইটা তো বিএনপিরই জোট।’

চুড়ির প্রসঙ্গ তুলতে আবারও ক্ষেপে উঠে রবিউল শেখ বলেন, ‘সে (কাদের সিদ্দিকী) শেখের বেটিরে চ্যালেঞ্জ দিছে, তারে নাকি ভোটে হারাইব! চুড়ি পিন্দনের কথা সে ভুইলা যাইতে পারে, আমি রবিউল শেখ ভুলি নাই, তারে আমিই চুড়ি পিন্দামু।’

Spread the love
  • 12.9K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    12.9K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।