পাকিস্থানকে ফাইনালে হারিয়ে যুব সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

বাংলাদেশের মেয়েরা আঞ্চলিক ফুটবলে একপ্রকার অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে বিগত বছরগুলোতে! মেয়েদের দেখানো সেই সাফল্যের পথে এবার হাঁটতে শুরু করেছে লাল-সবুজ অনূর্ধ্ব-১৫ কিশোররাও। শনিবার পাকিস্থানকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা ঘরে তুলেছে আনোয়ার পারভেজের শিষ্যরা।

নেপালের এএনএফএ কমপ্লেক্সে পাকিস্থানকে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তোলে বাংলাদেশের কিশোররা। নির্ধারিত সময়ে দুই দলের খেলা অমীমাংসিত ছিল ১-১ গোলে।

আসরের ফাইনাল বলেই রক্ষণে বেশ সতর্কই ছিল পাকিস্থান। রক্ষণাত্মক খেলতে গিয়েই দলটির একটি ভুল ২৫ মিনিটে এগিয়ে দেয় বাংলাদেশকে। লাল-সবুজ ডিফেন্ডার হেলাল উদ্দিনের কর্নার শট হেডে ঠেকাতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে জড়িয়ে দেন পাকিস্থানি ডিফেন্ডার হাসিভ আহমেদ খান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সেই গোল শোধ দেয় পাকিস্থান। ৫২ মিনিটে নিজেদের ডি-বক্সে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে ফেলে দেন হেলাল উদ্দিন। তাতে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ২ মিনিট পর স্পটকিকে বাংলাদেশ গোলরক্ষক মিতুল মারমাকে ঠাণ্ডা মাথায় পরাস্ত করেন মোহব উল্লাহ।

নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকার পর ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগে মূল গোলরক্ষক মিতুলকে উঠিয়ে সেমিফাইনালের নায়ক টাইব্রেকার স্পেশালিষ্ট মেহেদী হাসানকে নামান বাংলাদেশ কোচ। মেহেদী নেমেই করেন বাজিমাত!

ভারতের বিপক্ষে দুটি স্পটকিক ঠেকিয়ে সেমিতে নায়ক ছিলেন মেহেদী। নায়ক হলেন পাকিস্থানের বিপক্ষে ম্যাচেও। এদিন ৩টি শট ঠেকিয়ে দিয়েছেন এ গোলরক্ষক।

পেনাল্টি শ্যুটে প্রথমে শট নেয় বাংলাদেশ। কিন্তু প্রথমেই মিডফিল্ডার রাজন হাওলাদারের শট বার উঁচিয়ে বাইরে চলে গেলে শুরু হয় হতাশায়। কিন্তু মেহেদী এসেই কাটান হতাশার মেঘ।

পাকিস্থানিদের ৩টি শট একাই ঠেকিয়ে দেন লাল-সবুজদের বদলি গোলরক্ষক। সতীর্থদের দুটি শট হাতছাড়া হয়েছে ঠিকই, কিন্তু প্রতি শটেই লক্ষ্যে ঝাঁপিয়েছেন মেহেদী। মাঝখানে রবিউল আলমের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও গোলরক্ষকের কল্যাণে শিরোপার পথে বাঁধা হতে পারেনি লাল-সবুজদের সামনে।

শিরোপার পাশাপাশি ফেয়ার প্লে অ্যাওয়ার্ডও গেছে বাংলাদেশের ঘরে। সর্বোচ্চ গোলস্কোরার হয়েছেন বাংলাদেশের নিহাত জামান উচ্ছ্বাস। মালদ্বীপ ম্যাচে একাই ৪ গোল করেন লাল-সবুজ ফরোয়ার্ড।

গ্রুপপর্বে মালদ্বীপকে ৯-০ ও স্বাগতিক নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে শেষচারে পৌঁছেছিল বাংলাদেশ। সেখানে ভারতকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছায় লাল-সবুজরা। থামল শিরোপা উঁচিয়ে ধরেই।

Spread the love
  • 146
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    146
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।