ভাইয়া, ভাইয়া ডাকে অস্থির করে দেয়া- প্রেমে পড়ার লক্ষণ!

0

লাইফ স্টাইল ডেস্ক:

অফিস, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়ে কলিগ, বন্ধু বা ছোট বোনরা তরুণদের ভাইয়া বলে কোন আবদার করে বসে। আর এমন আবদার খুব কমই ফেলনা যায়। এক জরিপে দেখা গেছে অফিস, ভার্সিটি, কলেজে ‘ভাইয়া ভাইয়া’ উৎপাত আসলে সব সময় বিরক্তির কারণ না। কারণ যেই মেয়েটি আপনাকে সারাক্ষণ ভাইয়া ডেকে জ্বালাতন করছে, তার মনে আপনার প্রতি প্রেমের অনুভূতি থাকতে পারে। নিচের লক্ষণগুলো যদি মিলে যায় তাহলে আপনি মোটামুটি নিশ্চিত হতে পারবেন যে মেয়েটি আপনার প্রেমে পড়েছে–

# মেয়েটি আপনাকে কারণে অকারণে ফোন দেয়। ব্যক্তিগত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে চায়।

# হঠাৎ করেই ফোন করে জানায় তার মন খারাপ লাগছে এবং সে দেখা করতে চায়। কিংবা ‘বৃষ্টি হচ্ছে’, ‘চাঁদ উঠেছে’ এসবই আপনার সঙ্গে শেয়ার করে ফোন দিয়ে।

আরও পড়ুন  পরীক্ষার কথা বলে ছাত্রলীগ নেতার সাথে পালাল প্রবাসীর স্ত্রী!

# বিশ্ববিদ্যালয় অথবা অফিসে কোনো জটিল সমস্যায় পড়লে সে কি আপনার সাথে আলাপ করে? কোন বুদ্ধি চায়?

# তার জন্মদিন কিংবা বিশেষ দিনগুলো আপনার সঙ্গে কাটাতে চায় এবং আপনার আসার অপেক্ষা করে।

# জীবন সঙ্গী হিসেবে সে কেমন ছেলে চায় তা কি আপনাকে বার বার বলছে? আপনার সঙ্গে কি মিলছে তার কাঙ্ক্ষিত জীবন সঙ্গীর গুণাবলিগুলো?

# এমনও তো হতে পারে যেই মেয়েটি আপনার মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছে, আপনি নিজের অজান্তেই তার প্রেমে পড়েছেন। এই লক্ষণগুলো মিলিয়ে দেখুন তো আপনার মনেও এমন অনুভূতি হচ্ছে কিনা।

# কিছু কথা থাকে, যা সবাইকে বলা যায় না। সেসব কথা যদি আপনি নির্দ্বিধায় তাকে বলতে পারেন এবং সেও কোনো কিছু মনে না করে কথাগুলো বোঝার চেষ্টা করে, তাহলে ধরে নেবেন আপনি তার প্রেমে পড়েছেন।

আরও পড়ুন  প্রেমিক মুসলিম, তাই বিজেপি নেত্রী চড় দিলো তরুণীকে (ভিডিও)

# সে যা বলছে তাই আপনার ভালো লাগছে, কোনো কিছুতেই আপনি বিরক্ত হচ্ছেন না। এটি হলো প্রেমে পড়ার প্রধান লক্ষণ।

# হঠাৎ দেখলেন সে আজ অনুপস্থিত। আপনার মনের মধ্যে কি কোন পরিবর্তন আসে? জানতে ইচ্ছে হয় কী হয়েছে? তাহলে বুঝে নেবেন আপনি তার প্রেমে পড়েছেন এবং তাকে প্রতিমুহূর্তে অনুভব করছেন।

# তাকে নিয়ে আপনার বন্ধুদের কেউ কটূক্তি করলে আপনি ক্ষেপে যাচ্ছেন এবং কষ্ট পাচ্ছেন মনে। তাকে বিপরীত লিঙ্গের অন্য কারও সঙ্গে দেখলে আপনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

লক্ষণগুলো মিলে গেলেও হুট করে সিদ্ধান্তে চলে আসাটা বোকামি। অনেক সময় সম্পর্কের গভীরতা যা ভাবছেন তা নাও হতে পারে। তাই সিদ্ধান্তে আসার আগে সরাসরি কথা বলে নিশ্চিত হয়ে নিন, নইলে সুন্দর একটা সম্পর্কে তিক্ততা বা জটিলতা চলে আসতে পারে।

আরও পড়ুন  টিপস: কোন ধরণের জুতা কীভাবে পরিষ্কার করবেন?
Spread the love
  • 84
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    84
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।