৩ দিন মাদ্রাসায় আটকে ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে অধ্যক্ষার ২ পুত্র আটক

0

বরিশাল সংবাদদাতা:

৩ দিন ধরে মাদ্রাসায় আটকে রেখে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে ওই মাদ্রাসারই অধ্যক্ষার ২ কুলাঙ্গার পুত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি বরিশাল জেলা শহরের। গত শুক্রবার (১০ আগস্ট) ওই দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়। বরিশাল কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরুল ইসলাম গণমাধ্যম কর্মীদের নিকট এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষা বেগম জাহিদাতুন নেছার গ্রেফতারকৃত পুত্ররা হলো, জাহিদুল ও আসাদুল।

জানা যায়, অধ্যক্ষা জাহিদাতুন নেছার মাদ্রাসা কম্পাউন্ডে অবস্থিত বাড়িতে থেকে কাজ করার পাশাপাশি ওই মাদ্রাসার কুরসি বিভাগে পড়াশোনা করতো ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী। গত মঙ্গলবার অধ্যক্ষার পুত্র জাহিদুল মায়ের অনুপস্থিতিতে ওই ছাত্রীকে কাজের উছিলায় ডেকে আনে নিজের কক্ষে। তারপর অপ্রাসঙ্গিক কথার অবতারনা করে এক পর্যায়ে মুখ চেপে ধরে তাকে বিছানায় নিয়ে যায়। সেই সাথে চিৎকার করতে নিষেধ করে। লোক জানাজানি হলে তার বদনাম হবে বলে ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

আরও পড়ুন  হেফাজত আমির আল্লামা শফীর রহস্যেঘেরা জীবন ও অজানা ইতিহাস!

এক পর্যায়ে ধ্বস্তাধস্তি এবং চিৎকার শুনে তার ভাই আসাদুলও ঘটনাস্থলে এসে পড়ে। তারপর দুই ভাই মিলে তাকে জাপটে ধরে পর্যায়ক্রমে কয়েকবার ধর্ষণ করে। এর মধ্যে ধর্ষণের শিকার হয়ে আহত অবস্থায় মেয়েটি একবার পালিয়ে যেতে চাইলে তাকে ধরে ফেলে এবং মারধর করা হয়।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষা জাহিদাতুন নেছা বাড়ি ফিরে এলে মেয়েটি ধর্ষণের ঘটনাটি তাকে জানিয়ে এর উপযুক্ত বিচার দাবি করে। কিন্তু ছেলেদের বদনাম এবং শাস্তি হতে পারে ভেবে আলামত নষ্টের আশায় মেয়েটিকে ৩ দিন মাদ্রাসা ও ঘরের বাইরে যেতে দেয়নি। এর মধ্যে আরো কয়েক দফা তাকে ধর্ষণ করা হয় বলে জানা গেছে।

ঘরের মধ্যে আটকে রেখে একটি মেয়েকে নির্যাতন করা হচ্ছে টের পেয়ে স্থানীয়রা ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ওই মাদ্রাসা অধ্যক্ষার দুই ধর্ষক পুত্র জাহিদুল ও আসাদুলকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন  মাটির নিচে মাদকের খনি: ২৫ কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার!‍

কোতয়ালি থানার ওসি নূরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী নির্যাতনের মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Spread the love
  • 714
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    714
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।