খালেদা জিয়ার জন্য ‘খেতে খেতে অনশন’ করছে নেতা কর্মীরা!

0

সময় এখন ডেস্ক:

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্তৃক দায়েরকৃত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জন্য প্রতীকি অনশন করছে বিএনপির নেতা কর্মীরা। মহানগর নাট্যমঞ্চের যে জায়গাটিতে বিএনপির অনশন চলছে তার ঠিক উল্টোদিকে গাছের নিচে বসে কুড়িয়ে আনা পানির অনেকগুলো বোতল বস্তায় ভরছেন একজন নারী টোকাই।

কাছে গিয়ে জানতে চাইলে বলেন, ‘আইজ তো বহুত মানুষ আইছে। তাই বেশি বোতল পাইছি।’

একথা শুনে পাশে বসে থাকা একজন বৃদ্ধ নারী বলে উঠেন, ‘হ, এগো অনুষ্ঠান আর তোর কপাল খুলছে।’

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির প্রতীকী অনশনের কর্মসূচি চলাকালে নাট্যমঞ্চ চত্বরে এমন চিত্র দেখা যায়। জমায়েত না হলে নাট্যমঞ্চ এলাকায় তেমন লোকজনের সমাগম হয় না। যে কারণে ভ্রাম্যমাণ হকারদেরও নানা মুখরোচক খাবার নিয়ে এখানে তেমন একটা দেখা যায় না। তবে আজকে বিএনপির কর্মসূচি থাকায় হকারদের উপস্থিতি বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

বিএনপি নেতাকর্মীরা অনশনে আসলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হকারদের বিক্রিও বেড়ে গেছে। সকাল থেকে রোদের তেমন তাপ না থাকলেও ভ্যাপসা গরম শুরু হয় ১১টার দিকে বৃষ্টি হওয়ার পর থেকে। যে কারণে গরমে একটু স্বস্তি পেতে যেসব খাবার পাওয়া গেছে তাই কিনে পেট ভরেছেন অনশনে আসা নেতাকর্মীরা। এদের বেশিরভাগই বিভিন্ন ওয়ার্ড, থানা থেকে আসা কর্মী, সমর্থক।

পুরো চত্বর ঘুরে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের শীর্ষ নেতাদের এমনটা করতে দেখা যায়নি। তবে ফাঁকে ফাঁকে কেউ অনশনস্থল থেকে বের হয়ে সিগারেট ফুঁকে আবার অনশনে যোগ দিয়েছেন।

অনেককে আবার ক্ষুধা নিবারণ করতে রুটি, চা খেয়েই সময় পার করতে দেখা গেছে। পানি, রুটি, কলা, চা, শসা, ডালপুরি বেশি বিক্রি হচ্ছে বলে হকারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে। ডালপুরি বিক্রেতা জসীম উদ্দিন বলেন, ‘পাঁচশো পুরি আনছিলাম। প্রায় শেষ। অন্যদিন এতক্ষণে একশ পুরিও শেষ হয় না। আগে জানলে কয়েক হাজার আনতাম।’

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত অনশন কর্মসূচি শুরু হয় সকাল নয়টায়। চলবে বিকাল চারটা পর্যন্ত।

প্রতীকী অনশনে বিএনপি নেতাদের মাঝে উপস্থিত আছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, বাবু নিতাই রায় চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান, চোয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, কবির মুরাদ, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান সালেহ প্রিন্স।

কর্মসূচিতে এতে সংহতি প্রকাশ করেছেন বিএনপি জোটের শরিক দলগুলোর নেতারা। বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমেদ, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ।

Spread the love
  • 12.8K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    12.8K
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।