সিরিয়া যুদ্ধের ‘মিশন শেষ, আমরাই জিতেছি’: ডোনাল্ড ট্রাম্প

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

লোকে বলে, অতীত ফিরে ফিরে আসে। তবে কি সেটাই ঘটছে? জর্জ ডব্লিউ বুশের মতোই কি একই ভুল করতে যাচ্ছেন বিশ্ব রাজনীতির বর্ণিল চরিত্র মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প? চলমান সিরিয়া যুদ্ধে শতাধিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর পর শনিবার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘মিশন একমপ্লিশড, আমরা জিতেছি।’

এর আগে, ২০০৩ সালে ইরাক যুদ্ধের প্রাক্কালে ‘মিশন অ্যাকমপ্লিশড’ বলে ঘোষণা করেছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ। কিন্তু ‘মিশন’ শেষ ঘোষণা দেয়ারও প্রায় ৮ বছর পর ২০১১ সালে ইরাক থেকে সেনাবাহিনী সরাতে সক্ষম হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এই মুহুর্তে ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন টুইট নিয়েও তাই চলছে বিস্তর সমালোচনা। কেউ বলছেন, একটা জায়গাকে ধ্বংস করে দেয়ার পর ‘মিশন অ্যাকমপ্লিশড’ কথাটা শুনতে কিন্তু ভালো লাগলো না। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন ‘ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হলে সেটা কিন্তু প্রহসন হয়ে দাঁড়ায়।’

তবে বিশ্বব্যাপী এমন সমালোচনা সত্ত্বেও এ বিষয়ে মার্কিন মুখপাত্র নিক্কি হ্যালি জানিয়েছেন, সিরিয়ায় বাশার আল আসাদের সরকার যদি সাধারণ মানুষজনের উপর রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ বন্ধ না করে, তবে ফের হামলা চালানো হবে। ট্রাম্প প্রশাসনের অভিযোগ, সিরিয়ার বিদ্রোহীদের নিশ্চিহ্ন করার জন্য দুমা এলাকায় রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করেছেন আসাদের সরকার। আসাদকে শিক্ষা দিতে মার্কিন সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে এক যোগে সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ব্রিটেন ও ফ্রান্স। এই হামলার তীব্র নিন্দা করে রাশিয়া।

আসাদের বিরুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগের কোনো প্রমাণ নেই বলে দাবি করে রাশিয়ার হুমকি, মার্কিন জোটের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে অভিযোগ জানানো হবে। ভুল ধরিয়ে দিয়ে অনেকেই বলছেন, গণবিধ্বংসী অস্ত্র মজুদের অভিযোগে ইরাকে যুদ্ধ শুরু করেছিলেন বুশ। কিন্তু পরে প্রমাণ হয়েছিল যে, তাদের হাতে সে রকম কোনো গণবিধ্বংসী অস্ত্র ছিল না। অনেকেই বলছেন, শুধুমাত্র সন্দেহের বশে ট্রাম্পও একই ভুল করে ফেললেন না তো?

বিবিসি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।