পরিবেশ দূষণের প্রতিবাদে গায়ে আগুন দিয়ে মার্কিন আইনজীবীর আত্মাহুতি

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মনুষ্যসৃষ্ট কারনে পরিবেশের দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদ জানিয়ে নিজের শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রখ্যাত আইনজীবী। নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিন শহরের প্রসপেক্ট পার্ক থেকে ডেভিড বুকেল নামে ওই আইনজীবীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

বুকেলের লাশের পাশে থাকা পাওয়া একটি সুইসাইড নোটে তিনি জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার করে নিজেকে জ্বালিয়ে দিয়েছেন বলে লিখে গেছেন। মানুষ পৃথিবীর যে ক্ষতি করে চলেছে এটা তারই প্রতীক বলে দাবি করেছেন তিনি। বুকেল সুইসাইড নোটে লিখেছেন, বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ এখন প্রশ্বাসে দূষিত বাতাস নেয় আর অনেকেই অকালে মারা যায়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, আইনজীবী বুকেল সমকামী ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করার জন্য পরিচিত ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি বেশ কয়েকটি পরিবেশবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হন। আত্মহত্যার কিছুক্ষণ আগে তিনি সুইসাইড নোটটি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে ই-মেইলও করেন। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘দূষণ আমাদের গ্রহকে ধ্বংস করছে। বাতাস, মাটি, পানি ও আবহাওয়ার মাধ্যমে বাস্তুসংস্থান নষ্ট করছে।’ তিনি লিখেছেন, ‘জীবাশ্ম জ্বালানির মাধ্যমে আমার অকাল মৃত্যু নিজেদের সঙ্গে আমাদের কর্মকাণ্ডের প্রতিফলন করবে। এটা নতুন কিছু নয়। নিজ চোখে দেখা ক্ষতির বিষয়টি স্বার্থকভাবে ফুটিয়ে তুলতে আগেও অনেক মানুষ জীবন দেওয়াকে বেছে নিয়েছেন’।

আরও পড়ুন  ধর্মান্তরিত লিপা রাণীর লাশ ৪ বছর পর মুসলিম রীতিতে দাফনের নির্দেশ!

ডেভিড বুকেল নেব্রাস্কা রাজ্যের ব্র্যান্ডন টিনা ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আইনজীবী ছিলেন। তৃতীয় লিঙ্গের কিশোর ব্র্যান্ডন টিনাকে প্রথমে হত্যা ও আহত করা হয়। পরে তাকে হত্যা করে অপরাধীরা। পরবর্তীতে ওই ঘটনা অবলম্বনে ১৯৯৯ সালে নির্মিত ‘বয়েজ ডোন্ট ক্রাই’ সিনেমায় তার চরিত্রে অভিনয় করে অস্কার পুরস্কার লাভ করেন অভিনেত্রী হিলারি সোয়ানক।

বুকেল সমকামী ও তৃতীয় লিঙ্গে মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করা লাম্বদা লিগ্যালের ম্যারেজ প্রজেক্ট ডিরেক্টর ও জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবেও কাজ করেছেন। তার সহকর্মী কামিলা টেইলন তাকে ‘বৈধ স্বপ্নদ্রষ্টা’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।