পেজ ভেরিফাইড হওয়ায় ভক্তরা আরো সহজে আমার মজাদার রেসিপি পাবেন: কেকা ফেরদৌসী

0

হেঁসেল ঘর:

দেশের সর্বাধিক আলোচিত ও জনপ্রিয় রন্ধনশিল্পী কেকা ফেরদৌসী। টিভি অনুষ্ঠানের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও রয়েছে তার গ্রহণযোগ্যতা। ফেসবুকে তার অনুসারীর সংখ্যাটা সেই প্রমাণ দেয়। অনেকদিন ধরেই তিনি ফেসবুকে সক্রিয়। তবে কেকা ফেরদৌসীর নামে অনেক আইডি ও পেজ থাকায় বিভ্রান্ত হতেন তার অনুসারীরা। এবার সেই সমস্যা দূর হয়েছে। ফেসবুকে স্বীকৃতি পেয়েছেন এই রন্ধনশিল্পী।

গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টা নাগাদ তার পেইজে নামের পাশে নীল রঙের বৃত্তে সাদা রঙের টিক চিহ্ন দেখাচ্ছে। এর ফলে জনপ্রিয় এই রন্ধনশিল্পীর নিজস্ব ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি এখন থেকে থাকবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের নজরদারিতে। এছাড়া ভেরিফায়েড হওয়ায় ফেসবুকে কেকা ফেরদৌসীর নামের সব ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে।

এই স্বীকৃতি প্রসঙ্গে কেকা ফেরদৌসী বলেন, ‘এটা খুবই আনন্দের সংবাদ। সেইসঙ্গে স্বস্তিরও। ফেক অ্যাকাউন্টের কারণে অনেকেই আমাকে ফেসবুকে খুঁজে পেতেন না। এখন আর সেটা হবে না। এতে করে ফেক আইডিগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। এখন অনেক বেশি নিশ্চিন্তে থাকতে পারবো। আর আমার ভক্তরা খুব সহজেই আমার মজাদার রেসিপিগুলো পেয়ে যাবেন।’

আরও পড়ুন  বেয়ন্স কি মা হয়েছেন?

কেকা ফেরদৌসীর নিকট জানতে চাওয়া হয়- আপনার রান্না নিয়ে ফেসবুকে অনেকদিন ধরে সমালোচনা ও ট্রল হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে কী বলবেন?

তিনি বলেন, আমাকে আর আমার মজাদার রেসিপিগুলোকে নিয়ে যে ট্রল বানানো হচ্ছে সেটা আমি জানি। আমার ছেলেমেয়ে, বন্ধু, আত্মীয়স্বজনরা আমাকে এসব মেইলে পাঠাচ্ছে। যাদের কোনো কাজ নেই তারা এসব করে বেড়ায়। আসলে আমরা বাঙালিরা নিজেদের সম্মান দিতে জানি না। আমার মতো রন্ধনশিল্পী বাংলাদেশে বর্তমানে আর কে আছে! আগে সিদ্দীকা আপা ছিলেন, উনি এখন নেই। ওনার পরে তো আমারই স্থান।

যারা আমাকে নিয়ে হাসি ঠাট্টা করে তারা রান্না কাকে বলে সেটার বিন্দুমাত্রও বোঝে না। আমার সবগুলো অনুষ্ঠানে বড় বড় কোম্পানিগুলোর স্পন্সর থাকে। আমার রান্না যদি মজাদার ও সুস্বাদু না হতো তাহলে স্পন্সরগুলো এগিয়ে আসতো না। আর গত রমজানে নুডুলস নিয়ে যতগুলো রেসিপি করেছি সেগুলো কিন্তু বিশেষ ছিল। গতবছর রমজানে ৮টি চ্যানেলে আমার ৯০টি নতুন রেসিপি প্রচার হয়েছে। এ বছর আরও বেশি হবে।

আরও পড়ুন  মিথ্যাচারের জবাবে আসিফকে ধুয়ে দিলেন গায়ক প্রীতম আহমেদ (ভিডিও)

উল্লেখ্য, কেকা ফেরদৌসীর ফেসবুক পেজে অনুসারীর সংখ্যা ৭৪ হাজার ৩’শর বেশি।

Spread the love
  • 24
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    24
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।