বাংলাদেশ দলের অনুশীলনে অসহযোগিতা করে প্রতিশোধ নিচ্ছে শ্রীলঙ্কা?

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

অনুশীলন না করেই বিরক্ত নিয়ে গতকাল হোটেলে ফিরে যায় বাংলাদেশ দল। সিংহলিজ ক্রিকেট ক্লাবের নেটে যে ধরনের উইকেট চাওয়া হয়েছিল, তা মোটেও সে ধরনের না হওযায় অনুশীলন না করেই ফিরে যান মুশফিকরা। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের (শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট) অসহযোগিতায় বিরক্ত প্রকাশ করেন বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন। নিদাহাস ট্রফির ফাইনালের আগে দুটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। তার আগে কতটুকু কী অনুশীলন করতে পারবে দল, তা নিয়ে রয়েছে সংশয়।

ধারণা করা হচ্ছে, ইচ্ছা করেই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড অনুশীলনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দলকে সহযোগিতা করছে না। গত মাসে বাংলাদেশ সফর করে যায় শ্রীলঙ্কা দল। ওই সময় অনুশীলনে সহযোগিতা না করার জন্য বিসিবির বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ করেছিল শ্রীলঙ্কা দল। ধারণা করা হচ্ছে, এবার তারই প্রতিশোধ নিচ্ছে শ্রীলঙ্কা। স্বাগতিক হওয়ার সবটুকু সুবিধা তারা কড়ায় গণ্ডায় আদায় করে নিচ্ছে।

আরও পড়ুন  গাভাস্কার-রানাতুঙ্গারা করলে লীলা, সাকিব করলে...?

শ্রীলঙ্কা সবসময়ই বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভালো বন্ধু। টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া থেকে শুরু করে সবসময়ই বাংলাদেশের পাশে থেকেছে ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা। লঙ্কানরা মানুষ হিসেবেও জটিল নন। ভদ্রতা এবং সৌজন্যবোধ তাদের জাতিগত বৈশিষ্ট্য। তবে এবার বাংলাদেশ দলের সঙ্গে একটু জটিল ও নেতিবাচক আচরণই করে ফেলছে তারা। আর এসবের পেছনে কলকাঠি নাড়ছে বাংলাদেশের সাবেক ও শ্রীলঙ্কান বর্তমান কোচ চন্ডিকা হাতুরুসিংহে। মনে করা হচ্ছে, তার পরামর্শেই বাংলাদেশের চাহিদা অনুযায়ী অনুশীলনের ব্যবস্থা করছে না শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট।

শুধু প্রতিশোধ নেওয়াই নয়, এরমধ্যে একটা কূটচালও আছে বলে মনে করা হচ্ছে। আর এই চাল চালছেন হাতুরুসিংহেই। তিনি চান না বাংলাদেশ ফাইনালে খেলুক। তিনি চাইছেন শ্রীলঙ্কা ও ভারতের মাঝে ফাইনাল হোক। আর তাতে তিনি চলে আসার কারণেই বাংলাদেশ দলের শোচনীয় অবস্থা হয়েছে- এটা যেমন প্রমাণ হবে, তেমনি দায়িত্ব নেওয়ার পর শ্রীলঙ্কা দলের যে আমুল পরিবর্তন হয়েছে- সেটাও প্রমাণ হবে। এতে কোচ হিসেবে মাথা উঁচু হবে হাতুরুর।

আরও পড়ুন  বাংলাদেশ 'থার্ডক্লাস' বলে টুইট, আবার মুছে দিলেন শ্রীলঙ্কান গ্রেট সনাথ জয়াসুরিয়া!

বুদ্ধিমান হাতুরুর পরামর্শ মতোই কাজ করছে শ্রীলঙ্কা। আর এ কারণে প্রেমাদাসার অনুরূপ উইকেটে অথবা প্রেমাদাসায় অনুশীলন করতে দেওয়া হচ্ছে না বাংলাদেশকে। ভারত শ্রীলঙ্কা ফাইনাল খেললে বাণিজ্যিক দিক দিয়েও বেশ লাভ শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের (শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট)। এটাও একটা বড় কারণ হতে পারে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের আগে প্রেমাদাসার ফ্লাড লাইটে অনুশীলন করতে চেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু বাংলাদেশের সে অনুরোধ রাখেনি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট। যে ধরনের উইকেট চাওয়া হয়েছিল অনুশীলনের জন্য, সেটাও প্রস্তুত করছে না তারা। যা নিয়ে হতাশ ও বিরক্ত বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট।

Spread the love
  • 36
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    36
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।