বিশেষজ্ঞের পরামর্শ: ওষুধ ছাড়াই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ‘সহজ’ পন্থা

0

অনলাইন ডেস্ক:

শরীরের ইম্যিউন সিস্টেম বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে খাবার ও ব্যায়াম বা শরীর চর্চার কোনো বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞগণ গবেষণায় দেখেছেন ওষুধ ছাড়াই আপনি বাড়াতে পারেন আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

শরীরের ইম্যিউন সিস্টেম শক্তিশালী করার জন্য যে সকল প্রক্রিয়া রয়েছে, তার কিছুটা দেখুন:

  • মনখুলে হাসুন ও বাচ্চাদের সঙ্গে সময় কাটান
  • গান শুনুন অথবা নিজেই দু’লাইন গাইতে চেষ্টা করুন
  • অধিক চর্বিযুক্ত খাবার ও অধিক চিনিযুক্ত খাবার পরিহার করুন
  • বেশি করে মাছ খেতে চেষ্টা করুন
  • মাশরুম সমৃদ্ধ খাবার খেতে চেষ্টা করুন
  • অধিক পরিমাণ সাইট্রাস ফুড বা লেবু জাতীয় ফল আহার করুন
  • প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম করুন
  • শরীরের যত্ন ও বিশ্রাম নিন
  • অ্যালমন্ড জাতীয় ফল বেশি খান
  • অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান ও ব্যবহার পরিহার করুন
  • প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণ ভেজ ডায়েট বা শাক সবজি আহার করুন
আরও পড়ুন  নারী দিবস স্পেশাল: স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি মোকাবেলায় করণীয়গুলো

বিশেষজ্ঞগণ গবেষণায় দেখেছেন, আপনি যদি ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে খানিকটা সময় কাটান, দুষ্টুমি করেন, হাসি-ঠাট্টা করেন তাহলে শরীরের রোগ প্রতিরোধের জন্য দরকারি এন্টিবডি ও শ্বেত কণিকা বৃদ্ধি পায়, যা ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস প্রতিরোধ করে। অধিক চর্বি জাতীয় খাবার পরিহার এবং ফ্রেন্ডলি ফ্যাট যেমন: ফিশফ্যাট, ওমেগা-৩ ইত্যাদি আহারে প্রস্ট্যাগ্লান্ডিন হরমোন বাড়ায়। ফলে শক্তিশালী হয় ইম্যিউন সিস্টেম।

অধিক পরিমাণ সাইট্রাস ফুড আহারে রক্তের ফ্যাগোসাইট নামক উপাদানের বৃদ্ধি ঘটে যা ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে। সাইট্রাস ফুডের মধ্যে রয়েছে, কমলা, লেবু, আঙ্গুর ইত্যাদি। মার্কিন গবেষণায় প্রতীয়মান হয়েছে প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম করলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। বিশেষ করে মহিলাদের জন্য ঠাণ্ডা পানি কম ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। যাদের কমন কোল্ড বা ঠাণ্ডা সমস্যা বেশি থাকে তাদের শরীরের ইম্যিউন সিস্টেম দুর্বল থাকে। তাই যাতে সর্দি-কাশি, ঠাণ্ডা কম লাগে তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

আরও পড়ুন  কিছুতেই ওজন কমছেনা? পরিবর্তন করুন এই অভ্যাসগুলো

লেখক: চুলপড়া, এলার্জি, চর্ম ও যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।