ডোনাল্ড ট্রাম্পের গোপন খবর ফাঁস করবেন রাশিয়ান মডেল!

0

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে রাশিয়ার ‘আঁতাতের’ বিষয়ে অনেক তথ্য জানেন বলে দাবি করেছেন বেলারুশ বংশোদ্ভূত রাশিয়ার এক মডেল। বর্তমানে তিনি থাইল্যান্ডের একটি কারাগারে বন্দী রয়েছেন। আর কারাগার থেকে মুক্তির বিনিময়েই ওই তথ্যগুলো প্রকাশ করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
ছবি শেয়ারিংয়ের ওয়েবসাইট ইনস্টাগ্রামে এমনটা জানিয়েছেন রাশিয়ার ওই মডেল।

রাশিয়ান ওই মডেলের নাম আনাস্তাসিয়া ভাশুকেভিচ। তিনি নাস্তিয়া রেবকা নামেও পরিচিত। গত মাসের ২৬ ফেব্রুয়ারি থাইল্যান্ডে একটি ‘যৌন প্রশিক্ষণের’ সেমিনার চালানোর সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে অন্য নয় রাশিয়ানকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
থাই অভিবাসনের একজন কর্মকর্তা সিএনএনকে বলেন, রেবকা বেলারুশ থেকে এসেছেন এবং রাশিয়ার পাসপোর্টে থাইল্যান্ডে প্রবেশ করেছেন।
পরে পাতায়ার একটি কারাগারে নেওয়ার সময় রেবকা তার ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। ভিডিওতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সাংবাদিকদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানান।

আরও পড়ুন  মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধে ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্রের কোটি কোটি ডলার মুনাফা!

ওই ভিডিওতে আনাস্তাসিয়া বলেন, ‘আমি ভিডিও ও অডিওসহ আপনাদের সব তথ্য দিতে প্রস্তুত। আমি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প-রাশিয়া যোগসূত্রসহ আরও অনেক বিষয় জানি। আমি আপনাদের প্রস্তাবের অপেক্ষায় আছি এবং আমি থাই জেল থেকে আপনাদের জন্য অপেক্ষা করছি।’
চলতি মাসের শুরুর দিকে রাশিয়ার বিরোধী রাজনীতিবিদ আলেক্সি নাভালনির তদন্ত প্রতিবেদনের জেরে আলোচনায় আসেন রেবকা। ওই প্রতিবেদনে তার সঙ্গে রাশিয়ার ধনী এবং ক্ষমতাবান লোকদের যোগসূত্র থাকার কথা বলা হয়।
তদন্তে দেখা যায়, ২০১৬ সালের আগস্টে রাশিয়ার অন্যতম ধনী ব্যক্তি ওলেগ দেরিপাস্কা ও উপপ্রধানমন্ত্রী সেরগেই প্রিখোদকার সঙ্গে একটি প্রমোদতরীতে ভ্রমণে গিয়েছিলেন আনাস্তাসিয়া।

নাভালনি আরও বলেন, ভিডিওতে রাশিয়ার সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক নিয়ে দুজনের মানুষের বিষয়ে জানতে পেরেছেন তিনি। এ ক্ষেত্রে ক্রেমলিন এবং ট্রাম্পের প্রচারাভিযানের যোগসূত্র হিসেবে কাজ করতে পারেন দেরিপাস্কা ও প্রিখোদকার। কারণ ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার ম্যানেজার পল ম্যানাফর্টের সঙ্গে আগে কাজ করতেন দেরিপাস্কা।
রেবকার দাবি, দেরিপাস্কা ও প্রিখোদকার ভিডিও ফাঁস করার কারণে রাশিয়ার সরকারের নির্দেশে তাকে গ্রেপ্তার করেছে থাই পুলিশ।

আরও পড়ুন  আমেরিকানদের পাগলামি বাড়ছে: ট্রাম্প
Spread the love
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।