ওয়াজে যেতে হেলিকপ্টার লাগে, ৫০ হাজার টাকা অগ্রিম না দিলে যান না এই হুজুর!

3

আড়ালে তাকে ডাকা হয় হেলিকপ্টার হুজুর। সময় দেন মেপে। সহকারীর কাছ থেকে শিডিউল বুকিং দিতে হয় ন্যূনতম ১ মাস আগে। শীতকালে তো শিডিউলই পাওয়া যায় না। কিন্তু দেন দরবার করে বিশেষ সুযোগ সুবিধা দেয়া হলে শিডিউল মিলে যায়। তবে দিনে একাধিক জায়গায় ওয়াজে যেতে হলে হেলিকপ্টার ব্যবহার করেন আকছার। দামি মোবাইল ফোন, ল্যাপটপসহ আধুনিক জীবনযাত্রার সকল অনুষঙ্গই ব্যবহার করে অভ্যস্ত। এমন আধুনিক এক মাওলানাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দাওয়াত দিয়ে নিয়ে গেলে এলাকার শান বাড়ে, মান বাড়ে, সেই সাথে চাঁদাও ওঠে বিস্তর। ওয়াজ মাহফিলও আজকাল স্পন্সর ছাড়া হয় না। যত বড় চকচকে তকমাওয়ালা হুজুর, তত লোক সমাগম, তত বড় প্রচারণা। ইজ্জত বাড়ে আয়োজকদেরও।

আলেমরা বলেন, ওয়াজ করা হয় ইসলাম প্রচার করার জন্য। মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষকে হুজুররা টাকার বিনিময়ে ধর্মের বাণী প্রচার করে থাকেন। শীতকালটা হুজুরদের জন্য অর্থ উপার্জনের বিশেষ সময়। এ সময় চারদিকে প্রচুর ওয়াজ মাহফিল চলতে থাকে। আর হুজুররাও করমুক্তভাবে বিপুল অংকের অর্থ উপার্জন করেন, যার পরিমাণ শুনলে চাকরিজীবিরাও চাকরি ছেড়ে এই লাইনে নেমে যেতে পারেন! তবে ধর্ম প্রচারের জন্য হুজুরদের এত বড় অংকের টাকা চেয়ে বসেন যে, আয়োজকরা অর্থ সংকুলান করতে রীতিমতো হিমশিম খান। আবার চাহিদা মতো অর্থ যোগান দিতে না পারলে বিভিন্ন অজুহাতে হুজুররাও সেই মাহফিলে আর যান না। ধর্ম প্রচারটা মূলতঃ তাদের জন্য একটা ব্যবসা।

আরও পড়ুন  হাফেজ মুফতী মাওলানা মাসুদের উদ্দেশ্যে: হ্যালো মুরতাদ! শুনতে পাও কি?

সম্প্রতি নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলায় ১ দিনব্যাপী ওয়াজ মাহফিলে প্রধানবক্তা হিসেবে মাওলানা হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা) অগ্রিম টাকা নিয়েও ওয়াজে আসেননি। পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড সুন্দরপুরের স্থানীয় এলাকাবাসী ও মাহফিল কমিটি জানান, এই আয়োজনে বিগত কয়েক বছর ধরে এখানে ওয়াজ মাহফিল করে আসছিলেন স্থানীয় এলাকাবাসী। মাহফিল কমিটির নেতৃত্বে হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা)কে প্রধান বক্তা করে এখানে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। মাওলানা হাফীজুর রহমান ছিদ্দিকীর সাথে চুক্তি মোতাবেক ১০,০০০ টাকা অগ্রিমও প্রদান করা হয়।

এ লক্ষ্যে এক সাপ্তাহ আগে থেকে এলাকায় মাইকিং ও বিভিন্ন পোষ্টার বিলি করে প্রচার প্রচারনা চালানো হয়। আয়োজক কমিটি বিভিন্ন দানশীল ব্যক্তি ও লোকজন থেকে অনুদান সংগ্রহ করেন। সন্ধ্যায় ওয়াজ মাহফিলে যোগদান করতে দূর দূরান্ত থেকে ধর্মপ্রান মুসল্লিরা জমায়েত হতে থাকেন। মাহফিল শুরু করলে রাত ৯টার দিকে প্রধান বক্তা হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা) না আসায় লোকজন উত্তেজিত হয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন  ওয়াজ মাহফিলে 'রাজাকার সাঈদী প্রেম': বাধা দেয়ায় মুক্তিযোদ্ধা লাঞ্ছিত

এই ব্যপারে মাহফিল কমিটির সদস্যরা জানান হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা) আমাদের কাছে ৫০,০০০ টাকা অগ্রিম চাইলে আমরা ১০,০০০ টাকা দিয়ে বাকি টাকা মাহফিল সমাপ্ত হলে দিবো বলি। কিন্তু তিনি আমাদেরকে বিশ্বাস করেননি। আমরা সম্পূর্ণ টাকা অগ্রিম হিসেবে না দেয়ার কারনে তিনি এভাবে মাহফিলটা নষ্ট করেছেন। এর আগে গত ২৯ নভেম্বর নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে ১ দিনব্যাপী ওয়াজ মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে মাওলানা হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা) না আসায় প্যান্ডেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। বগাদিয়া কেন্দ্রীয় মসজিদ কমিটির ভারপ্রাপ্ত কোষাধ্যক্ষ ও ওয়াজ মাহফিল আয়োজক ক্বারী রাকিব উদ্দিন জানান, মসজিদের ইমাম রেয়াজুল ইসলামের মাধ্যমে হাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী (কুয়াকাটা)র সাথে যোগাযোগ করা হয়। ৪০ হাজার টাকাও দেওয়া হয়। বক্তা ওয়াজ মাহফিলে না আসায় জনরোষের ভয়ে ঐ ইমাম পলাতক রয়েছে।

আরও পড়ুন  বরিশালে আইসক্রিমের লোভ দেখিয়ে ৮ বছরের শিশু ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

এই ব্যপারে মাওলানা হাফীজুর রহমান ছিদ্দিকীর মোবাইল নাম্বারে (০১৭১৭৩০৩২**) বারবার কল দেয়া হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

অঢেল টাকার মালিক এই পেশাদার ওয়ায়েজ ইদানিং হেলিকপ্টারযোগে ওয়াজ করে বেড়াচ্ছেন। মাহফিলগুলো থেকে যে বিপুল পরিমাণ আয় হচ্ছে এবং একই সময়ে একের অধিক ওয়াজে বুকিং দেয়া হচ্ছে, সেটা সহজেই বোঝা যায়। সময় বাঁচাতে হেলিকপ্টারে চলাফেরা করছেন, দিনে দুই চার জায়গায় ওয়াজ করছেন তিনি। মাস শেষে কর বহির্ভূত আয়ের পরিমাণ কোটি টাকা। বাংলাদেশের শিল্পপতিরাও এমন নির্বিঘ্নে আয় করতে পারেন না মাথার ঘাম পায়ে ফেলেও। এমন আয়ের ওপর আয়কর দিতে কি ধর্মের বাধা আছে? এ ব্যাপারে আলেমদের কাছে জানতে চেয়ে কোন উত্তর পাওয়া যায়নি।

Spread the love
  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    27
    Shares

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।